এবারের বাজেটে আগামী ৫ বছরের জন্য তৈরি পোশাক শিল্পের কর্পোরেট কর ১০ শতাংশ করার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশের পোশাক প্রস্তুতকারী ও রপ্তানিকারকদের সংগঠন বিজিএমইএ। মঙ্গলবার জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) সম্মেলন কক্ষে রপ্তানি খাত সংশ্লিষ্ঠদের সঙ্গে এনবিআরের প্রাক-বাজেট আলোচনা সভায় বিজিএমইএ সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান এ দাবি জানান। এনবিআর চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে ওই সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন এফবিসিসিআই সভাপতি আব্দুল মাতলুব আহমদ।

বিজিএমইএ সভাপতি জানান, তৈরি পোশাক শিল্পে আগে হ্রাসকৃত ১০ শতাংশ হারে কর দিতে হতো। যা ২০১৪ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত অব্যাহত ছিল। পরে তা বাড়িয়ে ৩৫ শতাংশ করা হয়।

বিশ্ববাজারে এ খাতকে প্রতিযোগিতায় টিকিয়ে রাখতে ও বিনিয়োগ বাড়াতে এ কর আবারও ১০ শতাংশে নামিয়ে আনার দাবি জানান তিনি।

এছাড়া রপ্তানিমুখী পোশাক খাতের উৎসে কর কর্তনের হার ০ দশমিক ৬০ শতাংশ থেকে কমিয়ে আগের মতো ০ দশমিক ৩০ শতাংশ করার দাবি জানানো হয়।

রপ্তানিকে আরও প্রতিযোগী করে তোলার জন্য স্থানীয় বাজার থেকে সংগৃহীত সব পণ্যে ও সেবায় ভ্যাটমুক্ত রাখার আহ্বান জানায় বিজিএমইএ।

অন্যান্য প্রস্তাবগুলোর মধ্যে তৈরি পোশাক শিল্পের যন্ত্রপাতি ও যন্ত্রাংশ শুল্কমুক্তভাবে আমাদানির সুবিধা, রপ্তানিমুখী তৈরী পোশাক শিল্পের অডিট কার্যক্রমের জন্য দলিলাদি দাখিলের সময় ৩ মাসের পরিবর্তে ৬ মাস করা, পোশাক শিল্পের প্রতিকূল পেক্ষাপটে সুরক্ষার জন্য আগামী ৩ বছর এ খাতে রপ্তানিকারকদের ৩ শতাংশ হারে নগদ সহায়তা প্রদান এবং নতুন বাজারে পোশাক রপ্তানির ক্ষেত্রে নগদ ৫ শতাংশ সহায়তা প্রদানের প্রস্তাব করে পোশাক শিল্প সংশ্লিষ্টরা।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here