শুধু মেয়েদের নয়, ছেলেদেরও উচিত চুলের যত্ন নেওয়া। বিশেষ করে কর্মব্যস্ত পুরুষদের উচিৎ শরীরের পাশাপাশি প্রতিদিন চুলের যত্ন নেওয়া। কারণ, তাদের অনেক সময় ধরে বাইরে থাকতে হয় এবং বাইরের ধুলো-বালি, রোদ চুলের অনেক ক্ষতি করে। এতকিছুর পর সঠিক যত্নের অভাবে চুল পড়তে শুরু করে এবং ব্যক্তিত্বের সৌন্দর্যটাই মাটি হয়ে যায়। তাই শত ব্যস্ততার ফাঁকে সময় করে হলেও চুলের যত্ন নেওয়া খুব জরুরি।

  • সপ্তাহে একদিন গরম নারিকেল তেলের সাথে ভিটামিন-ই ক্যাপসুল মিশিয়ে চুলে ম্যাসেজ করা যায়। (ক্যাপসুল ফুটো করে ভেতরের নির্যাস বের করে নিতে হবে)
  • চায়ের লিকার খুব ভালো কন্ডিশনারের কাজ করে। শ্যাম্পু করার পর পরিষ্কার পানিতে চা ফুটিয়ে ছেঁকে নিয়ে তা ব্যবহার করা যায়। চুলে ১০-১৫ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলতে হবে।
  • মাসে দু’বার ডিমের সাথে লেবুর রস মিশিয়ে মাথায় ৩০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলতে পারেন। এতে চুল হবে সুন্দর ও মসৃণ।
  • চুল যেমনই হোক চুলে তেল দিলে খুবই উপকার পাওয়া যায়। সপ্তাহে দু’দিন তেল মাসাজ করে, একটি তোয়ালে গরম পানিতে ভিজিয়ে চিপে পানি ফেলে নিন তারপর মাথায় গরম তোয়ালে পেঁচিয়ে রাখুন।
  • নিজের ব্যবহার করা চিরুনি অন্যকে ব্যবহার করতে দেওয়া উচিত নয়। চিরুনি সবসময় পরিষ্কার রাখতে হবে।
  • হেয়ার স্প্রে, জেল খুব বেশি ব্যবহার না করাই ভালো।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here