রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর বিপক্ষে  টসে জিতে বল করার সিদ্ধান্ত নেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। শুরুতেই লোকেশ রাহুলের(৭) উইকেট হারিয়ে কিছুটা চাপে পড়ে রয়্যাল শিবির। দলের হাল ধরতে মাঠে নামেন ডিভিলিয়ার্স। জুটি বাঁধেন অধিনায়ক কোহলির সঙ্গে। এরপর যেটা চলল সেটা ধামাকা ছাড়া আর কিছুই বলা যায় না। মাত্র ২৫ বলে অর্ধশতরান পূরণ করেন ডিভিলিয়ার্স। পরের পালা ছিল কোহলির। ৪৭ বলে তিনিও নিজের কোটা পূরণ করে ফেলেন। শুরু হয় পুনের বোলারদের কচুকাটা করার পালা। ১৯.৩ ওভারে আউট হল কোহলি (৮০)। এর দু’বল পরে ফিরে যান ডিভিলিয়ার্সও (৮৩)। নির্ধারিত ওভারে দলের স্কোর দাঁড়ায় ১৮৫-৩।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই বেশ নড়বড়ে লাগল পুনেকে। শুরুতেই ফিরে যান ডু প্লেসি (২)। আহত হয়ে ফিরে যান কেভিন পিটারসন (০)। বেশিক্ষণ থাকলেন না  স্মিথও (৪)। মাঠে নামেন অধিনায়ক ধোনি। উলটো দিকে তখন ব্যাট করছেন রাহানে। তাঁরা দুজনেই দলের স্কোর এগিয়ে নিয়ে যেতে থাকেন। ব্যক্তিগত ৬০ রানের মাথায় ফিরে যান রাহানে। পরের ওভারেই ফিরে যান ধোনিও (৪১)। শেষবেলায় পেরেরা কিছুটা চেষ্টা করলেও, তিনি আউট হওয়াতে সেই আশাটুকুও কার্যত নিভে যায়। অবশেষে ১৩ রানে জয় পায় বিরাট রাজার দল।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here