সন্ত্রাসী কার্যক্রম মোকাবেলার জন্য দেশে অপরাধ নিয়ন্ত্রণ সেল গঠন করছে সরকার। এই সেল ২৪ ঘণ্টা খোলা থাকবে। এর মাধ্যমে অপরাধ প্রবণতা কমে আসবে বলে আশা করা হচ্ছে।

বুধবার দুপুরে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এ কথা জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাটের সঙ্গে বৈঠক শেষে মন্ত্রী সাংবাদিকদের এ ব্যাপারে ব্রিফিং করেন। মার্কিন রাষ্ট্রদূতও সাম্প্রতিক হত্যাকাণ্ড নিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন।

মন্ত্রী জানান, বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে বাংলাদেশ ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সন্ত্রাস মোকাবেলায় তথ্য আদান-প্রদান করবে। যেকোনো ধরনের সন্ত্রাস মোকাবেলায় এই দুই দেশ এক সঙ্গে কাজ করবে বলেও সিদ্ধান্ত হয়েছে।

বৈঠকে মার্কিন রাষ্ট্রদূত বলেন, বাংলাদেশে অপরাধীরা অপরাধ করে পার পেয়ে যাচ্ছে, তাদের পুলিশ ধরতে পারছে না। তবে এই অভিযোগ অস্বীকার করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। বার্নিকাটের এমন অভিযোগ সত্য নয় দাবি করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, কলাবাগান হত্যার পর পাঁচ মিনিটের মধ্যেই ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়েছে। তদন্ত শুরু করেছে। রাষ্ট্রদূতের এই কথার কোনো ভিত্তি নেই। কলাবাগান হত্যাকাণ্ড দেশীয় জঙ্গিরা করেছে, এদের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে এসেছি। অপরাধ করে জঙ্গিরা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন নাম প্রকাশ করে অপরাধের দায় স্বীকার করে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, দেশি এবং আন্তর্জাতিক জঙ্গি মোকাবেলায় বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্র তথ্য বিনিময় করা হবে এ জন্য দুই দেশ একমত হয়েছে। বাংলাদেশ তথ্য বিনিময়ের জন্য একটি সেল গঠন করবে। সেলটি ২৪ ঘণ্টা কাজ করবে। এই সেলে দায়িত্ব পালন করবে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব।

তিনি জানান, আমাদের কাছে অনেকগুলো হত্যাসংক্রান্ত কাগজ দিয়েছেন ইউএস অ্যাম্বাসেডর। আমরা দুইটি হত্যাণ্ডের বিষয়ে কাগজ দিয়েছি। আমরা একসঙ্গে কাজ করবো। এ পর্যন্ত ৩০টি হত্যার ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here