কয়েকদিন আগেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) চালু করেছে বেশ কয়েকটি নতুন নিয়ম। তারই একটার প্রথম শিকার হলেন এক অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার।

‘ফেক ফিল্ডিং’ করে ইতিহাসে চলে গেলেন অজি ঘরোয়া ক্রিকেটের দল কুইন্সল্যান্ডের মারনাস লাবুসচেন।

২৮ সেপ্টেম্বর ক্রিকেটে নতুন নিয়মগুলো চালু করে আইসিসি। ঠিক পরের দিন ঘটল এই ঐতিহাসিক ঘটনা। সীমিত ওভারের ঘরোয়া ক্রিকেট টুর্নামেন্ট জেএলটি ক্রিকেট কাপের খেলায় ঘটে এই ঘটনা।

শুক্রবার বিসব্রেনের অ্যালান বোর্ডার মাঠে কুইন্সল্যান্ড বুল ও ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া ইলেভেনের ম্যাচ চলছিল। অস্ট্রেলিয়া ইলেভেনের ব্যাটসম্যান পারাম উপ্পলের স্ট্রোক মারেন। শটটি বাঁচাতে ডাইভ দেন লাবুসচেন। শটটি তিনি আটকাতে পারেননি। কিন্তু ব্যাটসম্যানের দৌড় আটকাতে বল ছোঁড়ার ভঙ্গি করেন। যদিও আম্পায়ারের কাছে ক্ষমা চান লাবুসচেন।

এরপরই মাঠে উপস্থিত থাকা দুই আম্পায়ার নিজেদের মধ্যে কথা বলেন। লাবুসচেনের ভুলের শাস্তি পায় গোটা দল।

আইসিসির নতুন নিয়ম অনুযায়ী, কোনো ফিল্ডার যদি ইচ্ছা করে, ব্যাটসম্যানকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করে তাহলে ব্যাটিং টিমের স্কোরে শাস্তি হিসেবে ৫ রান যোগ হয়ে যাবে। এটাকেই ‘ফেক ফিল্ডিং’ বা ‘ভুয়ো ফিল্ডিং’ হিসেবে ধরা হচ্ছে।

আইসিসি নিয়ম চালুর ঠিক একদিন পরেই শাস্তির খড়গ নেমে এলো লাবুসচেনের ওপর। তার ভুলের সুযোগে অস্ট্রেলিয়া ইলেভেন ৫ রান বাড়তি পেয়ে যায়। যদিও ম্যাচটি নিজেদের করতে পারেনি তারা। ৪ উইকেটে জয় পায় কুইন্সল্যান্ড।

 

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here