শ্রীলঙ্কায় রোহিঙ্গা মুসলমানদের ওপর হামলাকারী ছয় উগ্রবাদী বৌদ্ধকে আটক করেছে দেশটির পুলিশ। হামলার শিকার অসহায় রোহিঙ্গা মুসলমানরা মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর হাতে ভয়াবহ নির্যাতনের পর পালিয়ে শ্রীলঙ্কায় আশ্রয় নিয়েছিলেন।

বৌদ্ধ-প্রধান শ্রীলঙ্কার সরকার বলেছে, বৌদ্ধ ভিক্ষুরা পশুর মতো আচরণ করেছে। গত মঙ্গলবার ভিক্ষুদের নেতৃত্বে কিছু উগ্রবাদী বৌদ্ধ রোহিঙ্গা মুসলমানদের ওপর হামলা করে। এসব রোহিঙ্গা মুসলমান শ্রীলঙ্কার রাজধানী কলম্বোর কাছে জাতিসংঘ প্রতিষ্ঠিত একটি নিরাপদ বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছেন।

হামলার সময় বৌদ্ধ ভিক্ষুরা ও তাদের সমর্থকরা রোহিঙ্গা মুসলমানদের ওপর ইট ও পাথর নিক্ষেপ করে এবং ইট-পাথরের আঘাতে ওই বাড়ির জানালা এবং কিছু ফার্নিচার ভেঙে যায়। হামলায় দুই পুলিশ আহত হয় এবং তাদেরকে হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়েছে। আহত পুলিশ দুজন বাড়ির নিরাপত্তার দায়িত্বে ছিল।

এর আগে শ্রীলঙ্কার সরকার আরো পাঁচ নারী-পুরুষকে আটক করেছে। একজন সরকারি কর্মকর্তা জানিয়েছেন, বাড়ির নিরাপত্তা নিশ্চিত না করার দায়ে কয়েকজন পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে। শ্রীলঙ্কার বৌদ্ধ ভিক্ষুদের সঙ্গে মিয়ানমারের ভিক্ষুদের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রয়েছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here