কক্সবাজার: নির্যাতনের শিকার হয়ে প্রাণভয়ে মায়ানমার থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের সরকার তাদের দেশে ফেরত পাঠানোর আশা করছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক যোগাযোগ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

মঙ্গলবার কক্সবাজারে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক চাপে মায়ানমার এ বিষয়ে এখন অনেকটা নমনীয় তারা রোহিঙ্গাদের ফেরত নিবেন বলে আশা করছেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্পের আশপাশে যেসব বাংলাদেশি রয়েছে, তাদের ক্ষতি পুষিয়ে দেওয়ার কথা চিন্তা ভাবনা করছে সরকার। এছাড়া যারা শিক্ষিত যুবক রয়েছে তাদের চাকরির ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।’

তিনি বলেন, ‘শুরু থেকেই আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের পাশে সরকার ছিল এবং আগামীতেও থাকবে। মানবিক দৃষ্টিকোণ থেকে প্রধানমন্ত্রীর আগেই নির্দেশনা দেওয়া আছে রোহিঙ্গাদের সব সুযোগ সুবিধা নিশ্চিত করতে। সরকার আশা করে, খুব শিগগিরই বাংলাদেশে অবস্থানরত রোহিঙ্গারা তাদের দেশে ফিরে যাবে।’

সরকারের কূটনৈতিক তৎপরতার কারণে মিয়ানমার তাদের অবস্থান থেকে সরে এসেছে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন,‘রোহিঙ্গাদের ফেরত নেবে না বলে তাদের সেনা প্রধান ঘোষণা দিয়েছিল। রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীকে নাগরিকত্ব না দিয়ে বাংলাদেশি বলে আখ্যায়িত করেছিল।এখন মিয়ানমার তাদের সেই অবস্থান থেকে সরে এসেছে। মিয়ানমার এখন বাংলাদেশে তাদের মন্ত্রী পাঠিয়েছে। এটি কি আমাদের কূটনৈতিক বিজয় নয়?

এটাকে শেখ হাসিনা সরকারের সাফল্য উল্লেখ করে মন্ত্রী আরও বলেন, ‘আওয়ামী লীগ নয়, নেতিবাচক রাজনীতি করতে গিয়ে বিএনপি এতিম হয়ে গেছে। তারা কয়েকদিন রোহিঙ্গা ক্যাম্পে গিয়ে মানবিকতার নামে তামাশা করেছে।’

মন্ত্রী বলেন, ‘রোহিঙ্গাদের অবস্থানের কারণে স্থানীয়দের যাতে কোনও সমস্যা না হয় সেদিকেও লক্ষ্য রাখছে সরকার। সেই লক্ষ্যে বেকারদের কর্ম সংস্থানসহ স্থানীয়দের বিভিন্ন ধরনের সহযোগিতা দেওয়া হবে।

এসময় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক শামিম, প্রধানমন্ত্রীর সহকারী একান্ত সচিব সাইফুজ্জামান শিখর, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা, সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান, সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক ও আওয়ামী লীগ নেতা মাহফুজুল হায়দার চৌধুরী রোটনসহ দলীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here