রোহিঙ্গা শরণার্থীদের নিজ দেশে ফেরত নিতে মিয়ানমার সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে ইউরোপিয়ান কাউন্সিল। কাউন্সিলের চেয়ারম্যান ডোনাল্ড টাস্ক এ আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, মিয়ানমার সরকারের উচিত নিজের আন্তর্জাতিক প্রতিশ্রুতি রক্ষা করে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের নিজ দেশে ফেরার অনুমতি দেয়া।

একই সঙ্গে তিনি মিয়ানমারের পশ্চিমাঞ্চলীয় রাখাইন প্রদেশে সহিংসতায় আক্রান্ত রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর কাছে ত্রাণ পৌঁছে  দেয়ার অনুমতি দিতেও মিয়ানমার সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

সম্প্রতি জাতিসংঘ কর্মীদের ছোট একটি দল রাখাইন প্রদেশ পরিদর্শন করে সেখানকার পরিস্থিতিকে অবর্ণনীয় বলে উল্লেখ করেন।

রোহিঙ্গা মুসলমানদের আশ্রয় প্রদানকারী বাংলাদেশ সরকার এ পর্যন্ত বহুবার এই জনগোষ্ঠীকে ফেরত নিতে মিয়ানমারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

গত ২৫ আগস্ট থেকে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী রাখাইন প্রদেশের রোহিঙ্গা মুসলমানদের বিরুদ্ধে জাতিগত শুদ্ধি অভিযান শুরু করে। দেশটির বর্বর সেনারা রাখাইন প্রদেশে নির্বিচারে গণহত্যা, ধর্ষণ ও ঘরবাড়ি জ্বালিয়ে দেয়াসহ বিভিন্ন রকম মানবতাবিরোধী অপরাধ চালাচ্ছে।

এসব বর্বরোচিত হামলায় এ পর্যন্ত কয়েক হাজার হতভাগ্য মানুষ নিহত হয়েছে। এই সহিংসতার জের ধরে গত একমাসে পাঁচ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা মুসলমান তাদের সহায়সম্বল ফেলে প্রতিবেশী বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে।

মিয়ানমার সরকার দেশটির প্রায় ১০ লাখ রোহিঙ্গা মুসলমানকে ‘বহিরাগত অনুপ্রবেশকারী’ বলে অভিহিত করছে এবং নাগরিকত্বসহ সব ধরনের নাগরিক অধিকার থেকে তাদেরকে বঞ্চিত করে রেখেছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here