জাতীয় সংসদের স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী রোহিঙ্গা সঙ্কট সমাধানে বিশ্ব ব্যাংকসহ আন্তর্জাতিক দাতাসংস্থাগুলোকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন।

মঙ্গলবার স্থানীয় সময় যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন ডিসিতে বিশ্ব ব্যাংক ও আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) আয়োজনে পার্লামেন্টারি নেটওয়ার্ক ওয়ার্কশপে শিরীন শারমিন এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, মানবিক কারণে আশ্রয় দিলেও নতুন করে আসা রোহিঙ্গারা বাংলাদেশের জন্য বোঝা হয়ে দাঁড়িয়েছে। তিনি বলেছেন, “প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে বাংলাদেশ অর্থনৈতিক উন্নয়নে বিশ্ববাসীর কাছে এক অনন্য দৃষ্টান্ত হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে। কিন্তু সম্প্রতি বিপুল সংখ্যক রোহিঙ্গা শরণার্থী বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। বাংলাদেশ সম্পূর্ণ মানবিক কারণে এই বিপুল সংখ্যক শরণার্থীকে আশ্রয় দিলেও এখন এটা বাংলাদেশের জন্য বোঝা হয়ে দাঁড়িয়েছে।”

বুধবার সংসদ সচিবালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, আইএমএফ সদর দপ্তরে ওই কর্মশালায় রোহিঙ্গা সঙ্কট সমাধানে স্পিকার বিশ্ব ব্যাংকের দৃষ্টি আকর্ষণ করে দ্রুত ইতিবাচক পদক্ষেপ নিতে দাতা সংস্থাসহ বিশ্ববাসীর প্রতি আহ্বান জানান।

সেনাবাহিনীর দমন-পীড়নের মুখে পালিয়ে আসা চার লাখের মত রোহিঙ্গা গত কয়েক দশক ধরে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়ে আছে। আর গত ২৫ আগস্ট রাখাইনে নতুন করে দমন অভিযান শুরুর পর বাংলাদেশে এসেছে আরও পাঁচ লাখ ২০ হাজার রোহিঙ্গা।

রোববার যুক্তরাষ্ট্রের উদ্দেশ্যে ঢাকা ছাড়েন স্পিকার শিরীন শারমিন। আগামী ২০ অক্টোবর তার দেশে ফেরার কথা রয়েছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here