আজ জাতীয় কন্যা শিশু দিবস। ‘কন্যা শিশুর জাগরণ, আনবে দেশে উন্নয়ন’ এই প্রতিপাদ্য নিয়ে পালিত হচ্ছে জাতীয় কন্যা শিশু দিবস। দিবসটি উপলক্ষে সরকারি-বেসরকারি পর্যায়ে বিভিন্ন ধরনের কর্মসূচি হাতে নেওয়া হয়েছে। রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দিবস নিয়ে পৃথক বাণী দিয়েছেন।

দিবসটি উপলক্ষে বাংলাদেশ শিশু অ্যাকাডেমি ও জাতীয় কন্যা শিশু অ্যাডভোকেসি ফোরাম শুক্রবার দিনব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। সকাল ৯টায় জাতীয় জাদুঘরের সামনে থেকে শুরু হয় কন্যা শিশু শোভাযাত্রা। এ শোভাযাত্রা শিশু অ্যাকাডেমি চত্বরে এসে শেষ হয়। এরপর শিশু অ্যাকাডেমি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হবে আলোচনা, চিত্রাঙ্কন ও বিতর্ক প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ, কন্যা শিশুদের আঁকা ছবি প্রদর্শনী, কন্যা শিশুদের সম্পাদনায় বিশেষ বুলেটিন, ক্রোড়পত্র ও জার্নাল প্রকাশ। কন্যাশিশুদের নির্মিত শিশুতোষ চলচ্চিত্র প্রদর্শনীরও আয়োজন করা হয়েছে। মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি, প্রমীলা ক্রিকেটার ও এভারেস্ট জয়ী নারীরা এসব অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন।

মেয়েদের শিক্ষার অধিকার, পরিপুষ্টি, আইনি সহায়তা ও ন্যায় অধিকার, চিকিৎসা সুবিধা ও বৈষম্য থেকে সুরক্ষা, নারীর বিরুদ্ধে হিংসা ও বলপূর্বক বাল্যবিবাহ বন্ধে কার্যকর ভূমিকা পালনের উদ্দেশ্যে এ দিবসের সূচনা করা হয়।

২০১১ সালের ১৯ ডিসেম্বর তারিখে জাতিসংঘের সাধারণ সভায় আন্তর্জাতিক কন্যা শিশু দিবসের প্রস্তাব গৃহীত হয়। এরই ফলশ্রুতিতে ২০১২ সালের ১১ অক্টোবর প্রথম আন্তর্জাতিক কন্যা শিশু দিবস পালন করা হয়। বাংলাদেশে ২০১৩ সাল থেকে বছরের একটি দিন জাতীয় কন্যা শিশু দিবস পালন করা হচ্ছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here