টেকনোলজির যুগে এখন সব কিছুই সম্ভব। এবার রাশিয়ার এক সংস্থা আবিষ্কার করেছে এমন এক স্মার্টফোন যা নজরদারি বা গুপ্তচরবৃত্তি আটকাতে সক্ষম। রাশিয়ান এই প্রযুক্তি সংস্থার নাম ‘ইনফোটেক’। এই সংস্থা সম্প্রতি এমনই এক ফোন তৈরির কথা জানিয়েছে। সংস্থার তরফ থেকে দাবি করা হয়েছে, কারো নজরদারি বা গুপ্তচরবৃত্তি শনাক্ত করতে সক্ষম এই ফোন।

স্বাভাবিকভাবেই ফোনটি ইতিমধ্যে টেক ওয়ার্ল্ডে আলাদা সৃষ্টি আকর্ষণ করেছে। দুবাইয়ে অনুষ্ঠিত ‘গিটেক্স ২০১৭’তে দেখানো হচ্ছে ফোনটি। এটা একটা অ্যান্টি-স্পাইং ফোন। কোনো মানুষ চান না যে তার ওপর কেউ গোপনে নজরদারি করুক। গুপ্তচরবৃত্তির শিকার হতে কে-ই বা চায়? এই চাওয়াকে পূরণ করতে আসা নতুন স্মার্টফোনটির নাম ‘তাইগা’। ফোনের যাবতীয় তথ্যের ওপর পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ থাকবে ইউজারের হাতে।

ফোনের তথ্য হাতিয়ে নিতে কেউ হামলা চালালে সঙ্গে সঙ্গ ফোনটি তা ধরে ফেলবে। আপনার অবস্থান বা ‘লোকেশন’ অপশনেও চাইলে কেউ নজর বোলাতে পারবে না। অবাঞ্ছিত এবং অনাকাঙ্ক্ষিত যোগাযোগ প্রতিহত করে তাইগা। ৫ ইঞ্চি টাচ স্ক্রিন রয়েছে এতে। এই ফোন তৈরির একদম শেষ পর্যায়ে রয়েছে। অনুমান করা হচ্ছে, ফোনটির দাম হবে ২৬০ ডলারের মতো। ভ্রমণ এবং ব্যবসায়ীদের জন্য দারুণ সুবিধা দেবে এটি। টেক্সটিংয়ের ক্ষেত্রেও অনেক নিরাপদ এই ফোন। অন্যান্য অ্যাপ ব্যবহারেও দেয় বাড়তি নিরাপত্তা। সুতরাং এখন শুধু সময়ের অপেক্ষা কবে এই ফোন বাজারে আসবে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here