অবশেষে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ও ওয়ানডে লিগ বিশ্ব ক্রিকেটে জায়গা করে নিচ্ছে। অকল্যান্ডে বৃহস্পতিবার বোর্ড সভার শেষ দিন এ ব্যাপারে সম্মতি জানিয়েছে আইসিসি। পয়েন্ট পদ্ধতি কেমন হবে কিংবা ভবিষ্যত সফর পরিকল্পনা কী, এমন কিছু বিষয়ে প্রশ্ন রয়ে গেছে।

তবে চূড়ান্ত হয়েছে ২০১৯ সালের বিশ্বকাপের পর শুরু হবে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ। শীর্ষ ৯ দলকে লড়বে দুই বছরের এ টেস্ট প্রতিযোগিতায়। ২০২১ সালের এপ্রিল পর্যন্ত শীর্ষে থাকা দুই দল চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনালের প্লেঅফে খেলবে। ওই বছরের জুনে ইংল্যান্ডে হবে শিরোপার লড়াই।

দুই বছরের মধ্যে প্রত্যেক দেশ ছয়টি সিরিজ খেলবে, তিনটি ঘরে ও তিনটি বিদেশে। প্রতিটি সিরিজ হবে কমপক্ষে দুই ম্যাচের। অ্যাশেজের মতো সিরিজের কথা মাথায় রেখে ম্যাচ সংখ্যা বাড়ানোর সুযোগ রাখা হয়েছে।

প্রথম ওয়ানডে লিগ হবে ২০২০-২০২১ মৌসুমে। ১২টি পূর্ণ সদস্য ও আইসিসি বিশ্ব ক্রিকেট লিগের চ্যাম্পিয়নরা খেলবে এই প্রতিযোগিতায়। ২০২৩ বিশ্বকাপে সরাসরি খেলার সুযোগ পাবে শীর্ষ দলগুলো। এই সময়ে ৮টি সিরিজ খেলবে প্রতিটি দল। ১৩ জাতির এই লিগের প্রতিটি সিরিজ হবে সর্বোচ্চ তিন ম্যাচের।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here