একবারেই সারা বছরের ফ্যাশন স্টেটমেন্টে সাজঘর ভরিয়ে ফেলেন ‘মস্ত মস্ত গার্ল’। বয়স বেড়েছে, কিন্তু রবিনা টন্ডন মানে এখনও ‘টিপ টিপ বারসা পানি’-র সেই উচ্ছল মেয়েই। তাইফ্যাশন থেকে সরে গেলে হয় না। স্টাইল অ্যাক্সেসারিজের সঙ্গে সব সময়েই থাকে নিবিড় যোগ। তবে সেই যোগাযোগ হয় একবারই। আর সেটাই হয় একদম সবচেয়ে উৎকৃষ্ট মানের।

অনেকেই সারা বছর ধরে পকেট থেকে টাকা খসিয়ে জামাকাপড় থেকে সাজগোজের জিনিস কেনেন। সেই জন্যই শুধু উৎসবের সময় নয় বছরভড় জমাজমাট থাকে কলকাতার দক্ষিণে গরিয়াহাট মার্কেট থেকে উত্তরের হাতিবাগান মার্কেট। শুধু সাধারণ মানুষ নয় অনেক সেলিব্রিটিও এই পন্থাতেই চলেন। সারা বছর ধরে যা ভালো চোখে পরে তা কিনতে থাকেন। কিন্তু এখানেই বাকিদের টেক্কা দিচ্ছেন রবিনা টন্ডন। বছরে একবারই বাজার পত্তর সেরে বাড়িতে ঢুকে পড়েন তিনি।

নব্বইয়ের দশকের হট অ্যান্ড হিট নায়িকার ছবিতে কাজ করার কাজ আগের থেকে কমেছে। কিন্তু থেকে গিয়েছে রিয়েলিটি শো। সেখানে তুলনায় কম হলেও নিয়মিত একটা ব্যস্ততা থাকেই। তাই রবিনা ফর্মুলা একটাই। একবারে যাও , মন ভরে শপিং করে চলে এসো। এতে সময়ও বাঁচে, ফ্যাশন নিয়ে বাড়েনা ধন্দও। কলকাতার একটি গয়নার সংস্থার প্রচারে এসেছিলেন তিনি। সেখানেই এমন কথা জানিয়েছেন তিনি।

রবিনা জানিয়েছেন, “সারা বছর ধরে মার্কেটিং করার সময় পাওয়া যায় না। তাই একবারে গিয়েই সবথেকে ভালো জিনিসটা কিনে নিয়ে আসি।” রবিনার কথায়, “রিয়েলিটি শো নিয়ে ব্যস্ততা মাঝেই মাঝেই বেশ বেরে যায়। সেটাকে সামলে একবারই শপিং করা আমার কাছে বেশি সুবিধার।” তিনি আরও জানিয়েছেন ওই একবারেই সবথেকে ভালো জিনিসটা নিজের ব্যাগে পুড়তে পছন্দ করেনি। রবিনার কথায়, “ফ্যাশনের ক্ষেত্রে ক্লাসিক জিনিসটা আমি প্রচণ্ড ভাবে পছন্দ করি। সেটা শুধু একবার গেলেই হয় না হলে ধন্দ বাড়ে।”

বলিউড তারকা আরও জানিয়েছেন, “প্রত্যেকেরই এমন জিনিস কেনা বা পড়া উচিৎ যেটা পরের প্রজন্মও পড়তে পারে বা তোমায় দেখতে শিখতে পারবে।” ক্লাসিক জিনিস পছন্দ করলেও এটাও দেখা প্রয়োজন ফ্যাশন ট্রেন্ড কি বলছে। ক্লাসিক জিনিস পরলেও সেটায় যদি একটু আগামীর ছোঁয়া থাকে সেটা লক্ষ্য রাখতে হবে। না হলেই প্রভূত সম্ভাবনা ব্যক ডেটেড হয়ে যাওয়ার।

এখন প্লেনে চরতে যাওয়ার আগেও নিজেদের ফ্যাশন দুরস্ত করে রাখছেন তারকারা। হাল ফ্যাশনের নতুন নাম এয়ারপোর্ট ফ্যাশন। তাহলে বুঝতে হবে ফ্যাশনের হাওয়া কোন দিকে মোড় নিচ্ছে। সেই দেখেই ফিউশন লুকেই নিজেকে সাজিয়ে তোলেন রবিনা টন্ডন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here