ব্রাজিলের কাছে হেরে রাশিয়া বিশ্বকাপে খেলার স্বপ্নভঙ্গের পরই আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়েছিলেন আর্তুরো ভিদাল। কিন্তু একদিন না যেতেই এই সিদ্ধান্ত থেকে ১৮০ ডিগ্রি ঘুরে গেলেন চিলির এই মিডফিল্ডার! জানিয়েছেন, তিনি চিলির ‘যোদ্ধা’ এবং ‘কখনো দলকে ছেড়ে যাবেন না’।

বাছাইপর্বে সাও পাওলোতে মঙ্গলবার রাতে ব্রাজিলের কাছে ৩-০ গোলে হেরে রাশিয়া বিশ্বকাপে যাওয়ার স্বপ্ন শেষ হয়ে যায় চিলির। ম্যাচের পরই টুইটার বার্তায় আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে অবসরের ঘোষণা দেন ভিদাল। লেখেন ‘বন্ধুরা, সবকিছুর জন্য ধন্যবাদ। ধন্যবাদ এতদিন একসঙ্গে থাকার জন্য।’

কিন্তু ২৪ ঘন্টারও কম সময়ের মধ্যে তিনি আরেকটি টুইট করে জানিয়েছেন, দল যতদিন চাইবে ততদিন জাতীয় দলের হয়ে খেলা চালিয়ে যাবেন। টুইট বার্তায় ভিদাল লিখেছেন, ‘এটা খুবই কঠিন একটা সময়। আমরা দেখতে পাব কে শক্তিশালী। চিলি হচ্ছে যোদ্ধাদের দল। আমি এই দলে থাকতে পেরে গর্বিত। আমি তাদের ছেড়ে যাব না। আমরা শেষ পর্যন্ত একসঙ্গে থাকব। জাতীয় দল যখনই আমাকে ডাকবে, তখনই আমি দলের জন্য সাড়া দিতে প্রস্তুত।’

আলেক্সিস সানচেজ ও ভিদাল হচ্ছেন চিলির বর্তমান সোনালি প্রজন্মের অন্যতম দুই সদস্য। তাদের নিয়েই ২০১৫ ও ২০০৬ কোপা আমেরিকা জিতেছে চিলি। ২০১০ ও ২০১৪- এই দুই বিশ্বকাপেই চিলি শেষ ষোলোতে ব্রাজিলের কাছে হেরে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নেয়। মঙ্গলবার সাও পাওলোতে হারল আরেকবার।

দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের পয়েন্ট টেবিলে সমান পয়েন্ট নিয়ে পেরুর সঙ্গে পাঁচে থেকে বাছাইপর্ব শেষ করে চিলি। কিন্তু গোল পার্থক্যে পিছিয়ে থাকায় রাশিয়া বিশ্বকাপে দর্শক হয়ে থাকতে হচ্ছে তাদের। এই অঞ্চল থেকে পয়েন্ট টেবিলের সেরা চার দল ব্রাজিল, উরুগুয়ে, আর্জেন্টিনা ও কলম্বিয়া সরাসরি বিশ্বকাপের টিকিট পেয়েছে। রাশিয়ায় যেতে হলে পঞ্চম স্থানে থাকা পেরুকে ওশেনিয়া অঞ্চলের শীর্ষ দল নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দুই লেগের প্লে-অফের বাধা পেরোতে হবে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here