অবশেষে পাকিস্তানে যেতে রাজি হয়েছে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দল। শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ২৯ অক্টোবর লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে একটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলার জন্য যাচ্ছে লঙ্কানরা।

লঙ্কান ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, গত দুই মাস থেকে পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কার ক্রিকেট বোর্ড এবং দুই দেশের সরকার নিরাপত্তার নানা দিক খতিয়ে দেখে সমঝোতায় পৌঁছেছে।

এতে বলা হয়, লঙ্কান বোর্ড প্রধান থিরাঙ্গা সুমাথিপাল নিজেই দলের সঙ্গে সফরে থাকবেন। লঙ্কানদের এই সফরে আমন্ত্রণ জানাবেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের প্রেসিডেন্ট নাজাম শেঠি।

বর্তমানে দল দুটি সংযুক্ত আরব আমিরাতে (ইউএই) অবস্থান করছে। সেখানে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ শেষ হয়েছে। চলছে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ। চলতি মাসের ২৬ তারিখ শুরু হবে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচটি। ওই সিরিজের শেষ ম্যাচটি খেলতেই পাকিস্তান সফরে রাজি হয়েছে লঙ্কান বোর্ড।

২০০৯ সালের ৩ মার্চ শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে পাকিস্তানের টেস্ট ম্যাচ চলাকালে গাদ্দাফি  স্টেডিয়ামের বাইরে বোমা হামলা হয়। এতে ছয় পুলিশ সদস্যসহ আট জন নিহত হন। আহত হন শ্রীলঙ্কার ছয় ক্রিকেটারসহ কয়েকজন। ওই হামলার পর পাকিস্তানে সব ধরনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট নিষিদ্ধ করে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা (আইসিসি)।

মাঝে জিম্বাবুয়ে ও আফগানিস্তান দল দেশটিতে সফর করলেও প্রথম সারির কোনো টেস্ট খেলুড়ে দল পাকিস্তানে খেলতে যায়নি। বোর্ডের পক্ষ থেকে বিভিন্ন দেশের ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে তদবির চালানো হয়। বিশেষ করে শ্রীলঙ্কাকে আনার জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিলেন তারা। লঙ্কান বোর্ড সফরের ইচ্ছা প্রকাশ করলেও প্রাথমিকভাবে ক্রিকেটাররা এতে নারাজ হয়। অবশেষে বোর্ড এ সফরের বিষয়টি নিশ্চিত করলো।

চলতি বছর পাকিস্তান সুপার লিগের (পিএসএল) আয়োজন দুবাইতে করা হয়। লাহোরে ওই আসরের সফল ফাইনাল আয়োজন করে। শুধু তাই নয় সম্প্রতি বিশ্ব একাদশের বিপক্ষে এই মাঠে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলে পাকিস্তান একাদশ। নিরাপদ আয়োজনের জন্য প্রশংসাও পায় তারা।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here