সময়ের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান তারা দু’জন। নিজ নিজ জাতীয় দলের অধিনায়কও। সম্প্রতি মুখোমুখি লড়াইয়ে অবশ্য বিরাট কোহলির ভারতের কাছে হেরে গেছে স্টিভেন স্মিথের অস্ট্রেলিয়া। তবে অন্য এক জায়গায় কোহলির চেয়ে বড় ব্যবধানেই এগিয়ে আছেন স্মিথ। বিশ্বের সবচেয়ে বেশি বেতন পাওয়া ক্রিকেটার এখন তিনি। অসি অধিনায়কের বার্ষিক বেতন বাংলাদেশি মুদ্রায় ১২ কোটি টাকারও বেশি। কোহলির বার্ষিক বেতন প্রায় সোয়া ৮ কোটি টাকা।

অন্যান্য আন্তর্জাতিক ক্রিকেটারদের তুলনায় স্মিথের বেতন কতটা বেশি সেটা বোঝা যাবে একটি ছোট্ট তুলনা থেকে। জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক গ্রায়েম ক্রেমারের বার্ষিক।

বেতন ৭০ লাখ টাকার কিছু বেশি। তার চেয়ে প্রায় ২০ গুণ বেশি বেতন স্মিথের। অবশ্য বেতনে পিছিয়ে থাকলেও কোহলি এখনও বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ক্রিকেটার। ভারতীয় বোর্ডের নানা স্বত্ব থেকে আয় আছে। পাশাপাশি ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ (আইপিএল) ও বিভিন্ন ব্র্যান্ডের প্রতিনিধিত্ব তাকে এ প্রাচুর্য দিয়েছে।

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে টেস্ট ক্রিকেটকে যথেষ্ট মর্যাদা না দেয়ার। অথচ খেলোয়াড়দের সবচেয়ে বেশি ম্যাচ ফি দেয় তারাই। প্রত্যেক ভারতীয় খেলোয়াড় ১৯ লাখ টাকার বেশি পান একটি টেস্ট খেলার জন্য। যা অস্ট্রেলিয়ার খেলোয়াড়দের দ্বিগুণ।

ক্রিকেটার হিসেবে সবচেয়ে অবহেলিত পাকিস্তানের খেলোয়াড়রা। তাদের সর্বোচ্চ বার্ষিক বেতন ৬১ লাখ টাকা। অথচ টেস্ট ক্রিকেটের নতুন সদস্য আয়ারল্যান্ডের ক্রিকেটারদের সর্বোচ্চ বেতন এর চেয়ে বেশি। অবশ্য বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটারদের তুলনায়ও আইরিশদের বেতন বেশি।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here