আমেরিকা, জাপান এবং দক্ষিণ কোরিয়া হামলার জন্য ছুটে আসা ক্ষেপণাস্ত্র শনাক্ত করার মহড়া মঙ্গলবার থেকে শুরু করেছে। উত্তর কোরিয়ার যে কোনো ক্ষেপণাস্ত্র বা পরমাণু হুমকি মোকাবেলার প্রস্তুতি নেয়ায় দু’দিনের মহড়ার উদ্দেশ্য বলে জানানো হয়েছে।

দক্ষিণ কোরিয়ার নৌবাহিনীর এক মুখপাত্র আরো জানান, এ মহড়ার মাধ্যমে সাগরে উত্তর কোরিয়ার উত্তেজনা সৃষ্টির বিরুদ্ধে প্রস্তুতি বাড়ানোর পাশাপাশি যৌথ অভিযানের সক্ষমতাও বাড়ানো হবে। দক্ষিণ কোরিয়া এবং জাপানের উপকূলে এ মহড়া চলবে। নর্দার্ন লিমিট লাইন নামে পরিচিত সাগরের সীমান্তের দক্ষিণাঞ্চলে জাপান অবস্থিত। এদিকে এর আগে এশিয়ায় বৃহত্তম মার্কিন রণতরি ইউএসএস রোনাল্ড রিগ্যানের নেতৃত্বাধীন স্ট্রাইক গ্রুপ দক্ষিণ কোরিয়ার বুসান বন্দরে ভিড়েছে।

জাতিসংঘ এবং মার্কিন নিষেধাজ্ঞাকে উপেক্ষা করে উত্তর কোরিয়া পরমাণু্ এবং ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা অব্যাহত রেখেছে। এ পর্যন্ত দেশটি ছয় বার পরমাণু বোমার পরীক্ষা করেছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here