ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের রাজধানী তেহরানের দক্ষিণে রেই শহরের কাছে একটি তেল শোধনাগারে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় অন্তত ৬ ইঞ্জিনিয়ার ও টেকনিশিয়ান নিহত এবং কয়েকজন আহত হয়েছেন।

ইঞ্জিনিয়ার ও টেকনিশিয়ানদের দলটি তেহরান তেল শোধনাগারের চোলাই টাওয়ারে উঠে কারিগরি ত্রুটি পরীক্ষা করে দেখার সময় সেখানে আগুনের সূত্রপাত হয়। টাওয়ারের শীর্ষে থাকার কারণে এই দলের কেউ নামতে পারেন নি। ফলে তাদের সবাই প্রায় মারা গেছেন। প্রেস টিভি জানিয়েছে, চোলাই টাওয়ারে অবস্থানরত একজন প্রাণে বাঁচার জন্য লাফ দেন এবং তিনি মারত্মক আহত হয়েছেন। এছাড়া, কয়েক ব্যক্তি আগুনে পুড়ে মারাত্মক রকমের আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

কী কারণে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে তা জানা যায় নি। তবে রেই শহরের মেয়র হেদায়েতুল্লাহ জামালিপুর জানিয়েছেন, টাওয়ারের ছিদ্র থেকে আগুন লেগে থাকতে পারে এবং আগুনের তীব্রতা ছিল ভয়াবহ।

তিনি জানান, টাওয়ারে আটকে পড়া লোকজন ভূমি থেকে বহু উপরে থাকায় কাউকেই বাঁচানো সম্ভব ছিল না। তেহরান তেল শোধনাগারের জনসংযোগ বিভাগের প্রধান হামিদ রেজা জাফারি বলেন, অগ্নিকাণ্ডে নিহতদের পরিচয় জানার চেষ্টা চলছে তবে তাদেরকে চেনার কোনো উপায় নেই। এরইমধ্যে আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে এবং অগ্নিকাণ্ডের কারণ খুঁজে বের করার জন্য তদন্ত শুরু হয়েছে।

তেহরান তেল শোধনাগারটি ১৯৬৮ সালে নির্মিত হয়েছিল এবং সেখানে প্রতিদিন দুই লাখ ব্যারেলের বেশি তেল শোধন করা যায়। গত জানুয়ারি মাসে এ তেল শোধনাগারের একটি ট্যাংকিতে বজ্রপাতের কারণে ব্যাপকভাবে আগুন ধরে যায় তবে সে সময় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটে নি।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here