ভারতের জাতীয় সঙ্গীত নিয়ে মন্তব্য করে ফের বিতর্কে জড়ালেন অভিনেত্রী বিদ্যা বালান। তাঁর কথায়, ‘সিনেমা শুরুর আগে জাতীয় সঙ্গীত বাধ্যতামূলক করা উচিত নয়।

স্কুল আর সিনেমা হল এক জিনিস নয়। এভাবে জোর করে কিছু চাপিয়ে দেওয়া অনুচিত’। তার মতে, জোর করে দেশপ্রেম কারও ওপর চাপিয়ে দেওয়া যায় না।

স্বাভাবিকভাবেই বিদ্যার এমন মন্তব্যকে কেন্দ্র করে শুরু হয়েছে জোর বির্তক। সম্প্রিত  ভারতে সিনেমা হলে ছবি শুরুর আগে জাতীয় সঙ্গীত গাওয়ার রীতি চালু হয়েছে। এই প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন, আমাকে ভুল বুঝবেন না। আমিও দেশকে ভালোবাসি। জাতীয় সঙ্গীত শুনলেই যেখানেই থাকি দাঁড়িয়ে পড়ি। দেশের জন্য সব কিছু করতে আমি প্রস্তুত।

এর আগে একবার বিমানবন্দরে প্রকাশ্যে শরীরে হাত দেওয়ায় ভক্তের উপর মেজাজ হারিয়েছিলেন বিদ্যা। এক ভক্ত কলকাতা বিমানবন্দরে বিদ্যার সঙ্গে সেলফি তুলতে চায়। বিদ্যা রাজি হতেই ওই ব্যক্তি নাকি তাঁর কাঁধে হাত দিয়ে সেলফি তোলার চেষ্টা করে। অস্বস্তি হওয়ায় বিদ্যা তাকে বলেন, কাঁধে হাত না রাখতে। কিন্তু ওই ব্যক্তি হাত সরিয়ে নিয়েও পরক্ষণেই আবার কাঁধে হাত রেখে সেলফি তোলার চেষ্টা করে। এরপর মেজাজ হারিয়ে ফেলেন বিদ্যা। ওই ব্যক্তির উপর চেঁচিয়ে তিনি বলেন, ‘কী করছেন এটা?’ এমন বলার পরেও ওই ব্যক্তি ফের একই কাজ করে। তখন বিদ্যা মাথা গরম করে ফেলেন।

পরে এই বিষয়ে সংবাদমাধ্যমকে বিদ্যা বলেন, ‘পুরুষ হোক বা নারী, একজন অপরিচিত কেউ যখনই শরীরে হাত রাখবে, তখনই একটা অস্বস্তিকর পরিবেশের সৃষ্টি হয়। আমরা পাবলিক ফিগার, পাবলিক প্রপার্টি নই। ’

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here