ভারতে মুসলিম জনসংখ্যা বৃদ্ধির ধারা অব্যাহত থাকলে ২০২৭ সালের মধ্যে ভারত ইসলামী রাষ্ট্রে পরিণত হবে বলে মন্তব্য করেছেন হিন্দু যুব বাহিনীর নেতা নগেন্দ্র প্রতাপ তোমর।

উত্তর প্রদেশের মীরাটে এক সমাবেশে নগেন্দ্র প্রতাপ তোমর বলেন, ভারতে ষড়যন্ত্র করে মুসলিম জনসংখ্যা বাড়ানো হচ্ছে। সেখানে তিনি মুসলিমদের বিরুদ্ধে তীব্র আপত্তিকর ও বিতর্কিত মন্তব্যও করেন।

তোমর বলেন, ‘রোহিঙ্গা ইস্যুতে মুসলিমরা লবিং করছে যাতে ভারতকে ‘দারুল ইসলামে’ পরিণত করা যায়। হিন্দুদের মধ্যে যারা কাপুরুষ ছিলেন তারা মুসলিম হয়েছিলেন কিন্তু যারা যোদ্ধা ছিলেন তারা আমাদের মধ্যে বসে আছে।’

তিনি বলেন, ‘আল্লাহর দান হিসেবে মুসলিমরা সন্তান জন্ম দেন না, বরং ভারতকে কবজা করার উদ্দেশ্যেই তা করা হয়।’

আজ গণমাধ্যমে প্রকাশ, হিন্দুত্ববাদী ওই নেতা মুসলিমদের দাড়ি ও তথাকথিত ‘লাভ জিহাদ’ নিয়েও তীব্র সমালোচনা ও কটাক্ষ করেন।

উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ ২০০২ সালে হিন্দু যুব বাহিনী গঠন করেন। তিনি এখনো এই সংগঠনের প্রধান। নগেন্দ্র প্রতাপ তোমর নামে বিতর্কিত মন্তব্যকারী ওই নেতা হিন্দু যুব বাহিনীর উত্তর প্রদেশের পশ্চিমাঞ্চলীয় প্রধান।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here