নিজেকে প্রমাণের অগ্নিপরীক্ষায় নেমে পড়েছেন ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ জেসিয়া ইসলাম। ‘৬৭তম মিস ওয়ার্ল্ড’ প্রতিযোগিতার প্রথম ধাপে বুধবার রাতে ‘হেড টু হেড চ্যালেঞ্জে’ অংশ নেন তিনি। আয়োজনটি সরাসরি দেখা গেছে মিস ওয়ার্ল্ডের ফেসবুক পেজ এবং ইউটিউব চ্যানেলে। তবে প্রথম পরীক্ষায় কেমন করেছেন জেসিয়া সেই ফল অবশ্য জানা যায়নি।

‘হেড টু হেড চ্যালেঞ্জ’ এর জন্য বাংলাদেশসহ ১২০ দেশের প্রতিযোগীকে ভাগ করা হয় ২০টি দলে। প্রতি গ্রুপে ছিলেন ছয় জন। এর মধ্যে গ্রুপ-সিক্সে ছিল জেসিয়ার নাম। এই গ্রুপে তার প্রতিদ্বন্দ্বী ব্রাজিল, দক্ষিণ আফ্রিকা, কানাডা, ইথিওপিয়া ও বটসওয়ানার সুন্দরীরা। অনুষ্ঠান শেষে প্রতিযোগীদের ভোট দেয়ার প্রক্রিয়া জানানো হয়।

কে কোন গ্রুপে থাকবেন তা নির্ধারিত হয় ড্রয়ের মাধ্যমে। গত মঙ্গলবার ওভারসিস চাইনিজ টাউন ইস্ট শেনজেনে ‘হেড টু হেড চ্যালেঞ্জ’-এর ড্র অনুষ্ঠিত হয়। এবারই প্রথম বিশ্বসুন্দরী প্রতিযোগিতায় যুক্ত হয়েছে এই বিভাগ। এই বিভাগের ফল থেকেই চূড়ান্ত হবে শীর্ষ ৪০ প্রতিযোগী। তাদের বলা হবে ‘ফাইনাল ফোর্টি’।

শীর্ষ ৪০-এ গেলে জেসিয়া অংশ নেবেন টপ মডেল, ট্যালেন্ট, মাল্টিমিডিয়া, স্পোর্ট, বিউটি উইথ অ্যা পারপাস বিভাগগুলোতে। এরপর গালা রাউন্ডে যাবেন সেরা ২০ প্রতিযোগী।

আগামী ১৮ নভেম্বর চীনের সানাইয়া সিটি এরেনায় হবে প্রতিযোগিতার ফাইনাল। ওইদিন নতুন মিস ওয়ার্ল্ডের মাথায় মুকুট পরিয়ে দেবেন বর্তমান বিশ্বসুন্দরী স্টেফানি দেল ভালে।

গত ২৯ অক্টোবর চীনের হুয়াংশানের ইয়েলো মাউন্টেনে জমকালো অনুষ্ঠানে মধ্যদিয়ে পর্দা ওঠে ‘৬৭তম মিস ওয়ার্ল্ড’ প্রতিযোগিতার এবারের আসরের। এই জায়গাটি চীনের সবচেয়ে সুন্দর পাহাড়ি এলাকাগুলোর মধ্যে অন্যতম। আনুষ্ঠানিকভাবে আসরটির উদ্বোধন করেন মিস ওয়ার্ল্ডের চেয়ারম্যান জুলিয়া মোরলে। এ সময় হুয়াংশানের মেয়র ডেভিড লি ও বেশ কয়েকজন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি উপস্থিত ছিলেন।

‘মিস ওয়ার্ল্ড’ প্রতিযোগিতার ৬৭তম আসরে অংশ নিতে গত ২০ অক্টোবর চীনের গুয়াংজু বিমানবন্দরে পৌঁছান জেসিয়া। এরপর বিশ্বসুন্দরী প্রতিযোগিতার অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেলে এসেছে তার পরিচিতি ভিডিও। মিস ওয়ার্ল্ড-এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটেও যুক্ত হয় ১৮ বছর বয়সী এই তরুণীর ছবি। জেসিয়ার মাধ্যমেই ১৬ বছর পর বিশ্বসুন্দরী প্রতিযোগিতায় দেখা যাচ্ছে লাল-সবুজের পতাকা।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here