প্রতি বছরই সারা পৃথিবী থেকে কেউ না কেউ বিশ্ব সুন্দরী হচ্ছে। সেই ১৯৯৪ সালে এই মুকুট জয় করেছিলেন বলিউড ডিভা ঐশ্বরিয়া রাই। কিন্তু তার সৌন্দর্য নিয়ে চর্চা এখনো হয়। জীবনের ৪৪টি বসন্ত পার করেও নিজের সৌন্দর্যে প্রতিনিয়ত ঘায়েল করছেন কোটি ভক্তকে।

কিন্তু সংসার ধর্ম পালন করতে গিয়ে মা হয়েছেন। এরপর অবশ্য লাইমলাইট থেকে কিছুটা দূরে চলে গেলেও, আবার তিনি ফিরেছেন রুপোলি পর্দায়। কারণ প্রসবের পর কিছুটা ওজন বেড়ে গেলেও, আবার ওজনকে নিজের আয়ত্বে নিয়ে এসেছেন বলিউড ডিভা। তবে জিম ছাড়াই নিজেকে ফিট রাখেন ঐশ্বরিয়া রাই। আর কীভাবে তিনি এই কাজটি করেছেন সেই রহস্য ফাঁস করলেন স্বয়ং তার স্বামী অভিষেক।

ঐশ্বরিয়া রাইয়ের ফিটনেস প্রসঙ্গে অভিষেক বলেন, ‘মা হওয়ার পর ওর জীবনে অভিনয় খানিকটা পিছনে চলে গিয়েছিল। আজ আরাধ্যার জন্য ও সব কিছু করে। আরাধ্যার জন্মের পর থেকেই সুপার মম হয়ে উঠেছে ও। কিন্তু সেই সময়ে ওজন বেড়ে যাওয়া নিয়ে মিডিয়া অনেক কিছু লিখেছিল। আমার খারাপ লেগেছিল। ওকে যে চেনে, জানে, ও কখনওই জিমে সময় কাটায় না। শুধুমাত্র ‘ধুম টু’-এর শ্যুটিংয়ের সময়ে উদয়, হৃত্বিক আর আমি মিলে ওকে জিমে টেনে নিয়ে গিয়েছিলাম। নাহলে ও সঠিক ডায়েট মেনে খাবার খেয়ে আর প্রচুর পরিমানে জল খেয়ে নিজেকে ফিট রাখে।’

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here