কক্সবাজারে রোহিঙ্গাদেরত্রাণ বিতরণের সময় অসংলগ্ন কথাবার্তা বলে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া রাজনৈতিক দৈন্যতার পরিচয় দিয়েছেন বলে মন্তব্য করেছেসড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

রবিবার কক্সবাজারের একটি হোটেলে রোহিঙ্গাদের জন্য বিভিন্ন সংগঠনের দেওয়া সোলার প্যানেলসহ বিভিন্ন ত্রাণ সামগ্রী গ্রহণকালে সেতুমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, রোহিঙ্গা ইস্যুতে বিশ্ববাসী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রশংসা করছেন। আর খালেদা জিয়া এবং তার দল সমালোচনা ও মিথ্যাচারে লিপ্ত রয়েছেন।রোহিঙ্গাদের জন্য ত্রাণ বিতরণের নামে সাত দিনের ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অচল করে রাখেন তিনি। এরপরও সরকারের পক্ষ থেকে কিছু বলা হয়নি। কারণ দেরিতে হলেও তিনি রোহিঙ্গাদের পাশে এসেছেন।

তিন বলেন, ‘রোহিঙ্গা সংকটে খালেদা জিয়া ও তার দল পাশে থাকেনি। আর রোহিঙ্গা ক্যাম্পে এসে এক/দুই দিন থেকে চলে গেছেন ফটোসেশন করে।’

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফিরিয়ে নিতে জাতিসঙ্ঘ কাজ করে যাচ্ছে। এ বিষয়ে সংস্থাটি কঠিন সিদ্ধান্ত নেবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেয়ার জন্য জাতিসঙ্ঘ কাজ করছে। জাতিসঙ্ঘের প্রতিনিধি দল দু’দেশেই কাজ করছে। যত দ্রুত সম্ভব মর্যাদা ও সম্মানের সাথে জাতিসঙ্ঘ তাদের ফিরিয়ে নেবে এটা আমাদের আশা।’

তিনি বলেন, ‘জাতিসঙ্ঘ রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে কঠিন বাস্তবতার মুখে কঠিন সিদ্ধান্ত নেবে এটা আমাদের অভিপ্রেত।’

নিজেদের অপরাধ আড়াল করতে মিয়ানমার আবোল তাবোল বলছে বলেও দাবি করে তিনি বলেন, ‘হাজার হাজার রোহিঙ্গা নারীদের ধর্ষণ, নির্যাতন করা হয়েছে। মিয়ানমারের এই চিত্র ৭১-এর গণহত্যাকেও হার মানায়। এটা একেবারেই জেনোসাইড। এটা জাতিগত নিধন, এই ঘটনা মিয়ানমার সরকারের, এটা তারাই করেছে। নিজেদের এই অপরাধ, পাপকে আড়াল করতে, ঢাকতে এখন তারা আবোল তাবোল বলছে।’

সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘রোহিঙ্গা সংকটে আমাদের প্রধানমন্ত্রীর ভূমিকা নিয়ে সারা দুনিয়া প্রশংসা করেছ। যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, ফ্রান্স, তুরস্ক, সৌদি আরব, ইরান ও ইউরোপিয়ান ইউনিয়নসহ সবাই এক বাক্যে বাংলাদেশের প্রশংসা করেছেন। কিন্তু বিএনপির কাছে এসব কিছুই নয়।’

এ সময় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম, ত্রাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায়সহ দলের কেন্দ্রীয় ও জেলার নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here