ব্যক্তিগত জীবনকে লাইমলাইটে নিয়ে আসতে চান না অনেক অভিনেতা-অভিনেত্রীই। কিন্তু এই বিষয়টিকে ভণ্ডামি মনে করেন ভারতের টেলিভিশন অভিনেত্রী স্নেহা ওয়াঘ।

অভিনেত্রীর অনস্ক্রিন জীবন যতটা আলোকময়, একেবারেই উল্টো তাঁর ব্যক্তিগত জীবন। ব্যক্তিগত জীবনের রোলারকোস্টারে জর্জরিত অভিনেত্রী স্নেহা ওয়াঘের জীবন।

প্রথম বিয়ে ভেঙে যায় গৃহ হিংসার কারণে। প্রথম বিয়ের সমস্যা থেকে বেরিয়ে আসতে দ্বিতীয়বার বিয়ে করেন অভিনেত্রী। কিন্তু ব্যবয়ায়ী অনুরাগ সোলাঙ্কির সঙ্গে তাঁর বিয়েও সমস্যার মধ্যে। দুজনেই ডিভোর্সের জন্য আবেদন করেছেন। এবং তাঁরা আলাদা আলাদাও থাকতে শুরু করেছেন। জীবনের রোলারকোস্টারে জর্জরিত অভিনেত্রী পুরুষ সম্পর্কে বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন।

স্নেহা বলেন, ‘আমি কখনওই বলব না যে ও খারাপ। কিন্তু এটা অবশ্যই বলব যে ও আমার জন্য সঠিক পছন্দ ছিল না। এমনও হতে পারে, আমি শক্তিশালী মস্তিষ্কের মেয়ে। আমার প্রথম বিয়ে ভেঙে যায় সাংসারিক হিংসার কারণে। দুবার বিয়ে ভেঙে যাওয়ার পর এখন এটাই মনে হচ্ছে যে, পুরুষরা কখনওই শক্তিশালী মহিলাকে পছন্দ করে না। তাই এখন আর আমার কাছে বিয়ে কোনও গুরুত্বই রাখে না।’

অভিনেত্রী আরও বলেন, ‘আমার বোন, আমার পরিবারই এখন আমার শক্তির পিলার। এমন পরিস্থিতিতে ওদেরকে খুব মিস করছি। এখন কেরিয়ারই আমার একমাত্র লক্ষ্য।’

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here