ইয়েমেন সীমান্তে হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়ে একজন সৌদি প্রিন্স নিহত হয়েছে। সৌদি আরবের রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত আল-ইখবারিয়া নিউজ চ্যানেল জানিয়েছে, দেশটির আসির প্রদেশের ডেপুটি গভর্নর প্রিন্স মানসুর বিন মুকরিন যখন বেশ কয়েকজন পদস্থ কর্মকর্তাকে নিয়ে হেলিকপ্টারে ভ্রমণ করছিলেন তখন এটি বিধ্বস্ত হয়।

হেলিকপ্টারের বাকি আরোহীদের ব্যাপারে কোনো তথ্য নিউজ চ্যানেলটি জানায়নি। তবে অসমর্থিত খবরের বরাত দিয়ে সৌদি বার্তা সংস্থা ওকাজ জানিয়েছে, বিধ্বস্ত হেলিকপ্টারের কোনো যাত্রী বেঁচে নেই।

হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হওয়ার কারণ জানানো হয়নি। তবে এর একদিন আগে রিয়াদের কিং খালিদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে ইয়েমেনের হুথি প্রতিরোধ আন্দোলনকারীদের নিক্ষিপ্ত একটি ক্ষেপণাস্ত্র আঘাত হানে।

এ ছাড়া, রোববার সৌদি যুবরাজের ক্ষমতা সুসংহত করার লক্ষ্যে ১১ জন প্রিন্স ও চার মন্ত্রীসহ অসংখ্য কর্মকর্তাকে দুর্নীতির অভিযোগে আটক করা হয়। কথিত দুর্নীতি বিরোধী এই অভিযানের নেতৃত্ব দিচ্ছেন সৌদি যুবরাজ মোহাম্মাদ বিন সালমান।

হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় নিহত প্রিন্স মানসুর বিন মুকরিন হচ্ছেন সাবেক সৌদি যুবরাজ মুকরিন বিন আব্দুল আজিজের পুত্র।  সাবেক রাজা আব্দুল্লাহর শাসনামলে মুকরিন বিন আব্দুল আজিজ ছিলেন সৌদি যুবরাজ। কিন্তু ২০১৫ সালে আব্দুল্লাহর মৃত্যুর পর সালমান বিন আব্দুল আজিজ সৌদি রাজত্বের দায়িত্ব গ্রহণ করার কয়েক মাসের মধ্যে মুকরিনকে সরিয়ে নিজ পুত্র মোহাম্মাদ বিন সালমানকে যুবরাজের পদে অধিষ্ঠিত করেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here