বিশ্ব ক্রিকেটের অন্যতম তারকা অলরাউন্ডার যুবরাজ সিং। এক সময় তার ব্যাট রূপকথা লিখেছে। ২০১১ ভারত দলের বিশ্বকাপ জয়ের অন্যতম রূপকারও তিনি। এরপরই দুরারোগ্য ক্যানসার তার জীবনে থাবা বসিয়েছিল। কিন্তু তারপরেও ফিরে এসেছিলেন তিনি।

জনপ্রিয় টেলিভিশন কুইজ শো ‘কৌন বনেগা ক্রোড়পতি’ (কে হবেন কোটিপতি)তে  এসে নিজের ক্যানসারের দিনগুলোর কথা বলছিলেন যুবি। এই গেম শো’র স্পেশাল ফাইনাল এপিসোডে অভিনেত্রী বিদ্যা বালানের সঙ্গে এসেছিলেন তিনি।

ক্যানসারে ভোগার দিনগুলোতে তার অসহ্য যন্ত্রণার কথা কুইজ শো’র সঞ্চালক বলিউড কিংবদন্তি অমিতাভ বচ্চন এবং দর্শকদের জানান যুবি। এক পর্যায়ে যন্ত্রণার দিনগুলি স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে কেঁদেই ফেলেন ভারতীয় অলরাউন্ডার।

তিনি বলেন, আমি খেলা চালিয়ে গিয়েছিলাম। আমার শরীর আরো খারাপ হতে থাকে। ডাক্তাররা জানিয়েছিলেন, এখনই চিকিৎসা শুরু না করলে তোমাকে বাঁচানো অসম্ভব হবে। আমার স্বাস্থ্য এবং ক্যারিয়ার দু’টিই তখন ঘোর অনিশ্চয়তায় পড়ে গিয়েছিল।

অসুস্থতা নিয়ে খেলেই ২০১১ বিশ্বকাপে ম্যান অফ দ্য টুর্নামেন্ট নির্বাচিত হয়েছিলেন যুবি। সে বছরই তার ফুসফুসে ম্যালিগন্যান্ট টিউমার ধরা পড়ে। এরপর চিকিৎসার জন্য ইংল্যান্ডের বোস্টনে যান যুবরাজ। সেখানেই ক্যানসারকে জয় করে ফের ভারত জাতীয় দলে সুযোগ পান এ ক্রিকেটার।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here