টঙ্গীর তুরাগ তীরে ১৭ নভেম্বর (শুক্রবার) বাদ ফজর বয়ানের মধ্যদিয়ে শুরু হবে পাঁচ দিনের জোড় ইজতেমা। বিশ্ব ইজতেমা শুরু হওয়ার আগে পাঁচ দিন এ জোড় ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়। ২১ নভেম্বর (মঙ্গলবার) মোনাজাতের মধ্যদিয়ে শেষ হবে জোড় ইজতেমা আনুষ্ঠানিকতা।

বিশ্ব ইজতেমার মুরুব্বী গিয়াস উদ্দিন জানান, বিশ্ব ইজতেমা সুন্দর ও সফলভাবে শেষ করার জন্য প্রতি বছর টঙ্গীর তুরাগ তীরে এই জোড় ইজতেমার আয়োজন করা হয়। এবার জোড় ইজতেমায় দেশের ৬৪টি জেলা থেকে আড়াই লাখ থেকে তিন লাখ মুসল্লি অংশ নেওয়ার কথা রয়েছে।

তিনি আরও জানান, এ জোড় ইজতেমায় বিভিন্ন মেয়াদে চিল্লাধারী মুসল্লিরা এ জোড় ইজতেমায় অংশ নেন। জোড় ইজতেমা শেষে মুসল্লিরা বিভিন্ন এলাকায় তাবলীগী কাজে ছড়িয়ে পড়েন।

গাজীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর ও টঙ্গী সার্কেল) সাখাওয়াত হোসেন জানান, টঙ্গীর তুরাগ তীরে সুষ্ঠুভাবে জোড় ইজতেমা শেষ করতে এলাকায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হবে। পুলিশ ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী মুসল্লিদের নিরাপত্তায় নিয়োজিত থাকবে।

২০১৮ সালের বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হবে জানুয়ারি মাসে। সে হিসেবে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব ১২, ১৩ ও ১৪ এবং দ্বিতীয় পর্ব ১৯, ২০ ও ২১  জানুয়ারিতে অনুষ্ঠিত হবে

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here