নতুন কিছু শেখার পরপরই অ্যালকোহল খেলে আমাদের স্মৃতিতে সেই তথ্য আরও ভালোভাবে গেঁথে যায়। সম্প্রতি নতুন এক গবেষণায় এমনটাই দাবি করেছেন গবেষকরা। ইউনিভার্সিটি অব এক্সেটার এর গবেষকরা গবেষণাটি করেছেন বলে জানিয়েছেন।

গবেষণায় অংশগ্রহণকারী ৮৮ জন যারা বিভিন্ন অনুষ্ঠান আয়োজনে মদ্যপান করেন, তাদের নতুন শব্দ শেখার পরীক্ষা দেন গবেষকরা। এরপর তাদের দুইভাগে ভাগ করা হয় এবং বলা হয়, তাদের ইচ্ছামত পান করতে বা একদমই পান না করতে।

পরদিন তাদের সবাইকে নতুন শেখা শব্দগুলো মনে করতে বলা হয়। সেখানে দেখা যায়, যারা অ্যালকোহল পান করেছেন তারা বেশি শব্দ মনে করতে পেরেছেন।

তবে গবেষকরা জোর দিয়ে এও বলেছেন, অ্যালকোহল পানের এই ছোট্ট সম্ভাব্য ইতিবাচক দিকের পাশপাশি অতিরিক্ত মদ পানের কারণে শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্যের পাশপাশি স্মৃতিশক্তিতে যে মারাত্মক ক্ষতিকর প্রভাব পড়ে সেটিও বিবেচনা করা উচিত।

প্রধান গবেষক সেলিয়া মরগান বলেন, “আমাদের গবেষণা শুধু নতুন শেখা শব্দ মনে রাখার পরীক্ষায় যারা অ্যালকোহল পান করে তাদের ভাল করার কথাই বলছে না, বরং যারা বেশি মদ্যপান করে তাদের ওপর এর প্রভাব বেশি হওয়ার কথাও বলছে। “কিন্তু কি কারণে এমন হচ্ছে তা এখনও পুরোপুরি বুঝতে পারা যায়নি। তবে ‍খুব সম্ভবত মদ পানের পর মস্তিষ্কে নতুন তথ্য পৌঁছানো বন্ধ হয়ে যায়। যে কারণে, মস্তিষ্কে দীর্ঘসময় ধরে সর্বশেষ শেখা তথ্য থেকে যায় এবং গভীরে গেঁথে যায়।”

এর আগে গবেষণাগারে এই ধরনের পরীক্ষা করা হলেও এবারই অংশগ্রহণকারীরা নিজ বাড়িতে বসে মদ পান করেছেন। সায়েন্টিফিক রিপোর্টস জার্নালে এ গবেষণা প্রতিবেদনটি প্রকাশ করা হয়েছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here