নির্বাচনে অংশ না নিলে বিএনপির করুণ অবস্থা হবে বলে মন্তব্য করেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। শুক্রবার ভোলার সদর উপজেলার ভেলুমিয়া ইউনিয়নে প্রায় ৬ কিলোমিটার এলাকায় নতুন বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন। ৭৬ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিত এই বিদ্যুৎ লাইন থেকে ৩১৭টি পরিবারকে বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়া হয়।

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, নির্বাচনকালীন সময়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারই অন্তর্বর্তীকালীন সরকারের দায়িত্ব পালন করবে।

তিনি বলেন, বিএনপি যত কথা বলুক না কেন তারা আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে। নির্বাচনে না আসলে তাদের করুন অবস্থা হবে।

সরকার দেশের গ্রামগুলোর উন্নয়নে কাজ করছে উল্লেখ করে তোফায়েল আহমেদ বলেন, আজকে গ্রামগুলোর রাস্তা পাকা ও ঘরে-ঘরে বিদ্যুৎ রয়েছে। মানুষের হাতে-হাতে মোবাইল ফোন। মানুষের জীবনমান উন্নত হয়েছে।

বিএনপির সমালোচনা করে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বিএনপি অনেকবার ক্ষমতায় ছিল। কিন্তু দেশের কোনো উন্নয়ন করতে পারেনি। আওয়ামী লীগ ৪ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন রেখে গিয়েছিল। বিএনপি ক্ষমতায় এসে সেটাকে কমিয়ে ৩ হাজারে করেছে। ২০২১ সাল নাগাদ দেশে ২৪ হাজার মেগাওয়াট বিদুৎ উৎপাদন হবে বলে মন্ত্রী আশা প্রকাশ করেন।

তিনি বলেন, ভোলাকে নদী ভাঙ্গন থেকে রক্ষা করতে ব্যাপক কাজ হচ্ছে। ভোলা-বরিশাল সেতু নির্মাণেরও সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের কাজ চলছে। এছাড়া সদরের বাংলাবাজার এলাকায় ২০০ শয্যার আজাহার-ফাতেমা খানম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল নির্মাণ করা হবে।

এ সময় মন্ত্রী যেসব বসতবাড়িতে এখোনো বিদ্যুৎ সংযোগ যায়নি, শিগগিরই সেগুলোতে বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদানের জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন।

ভেলুমিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. সালাম মাস্টারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল মমিন টুলু, পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির জিএম কেফায়েত উল্লাহ, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. মোশারেফ হোসেন, উপজেলা আওয়ামী লীগ সম্পাদক নজরুল ইসলাম গোলদার প্রমুখ।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here