রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, মার্কিন সরকার তার দেশের আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন বানচাল করার ষড়যন্ত্র করছে। তিনি বৃহস্পতিবার মস্কোয় এক বক্তব্যে এ আশঙ্কা প্রকাশ করেন।

পুতিন বলেন, ২০১৬ সালে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার কথিত হস্তক্ষেপের অজুহাতে ২০১৮ সালে রাশিয়ায় অনুষ্ঠেয় প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করতে চায় ওয়াশিংটন। অথচ মার্কিন নির্বাচনে রাশিয়ার হাত থাকার অভিযোগ প্রমাণ করা যায়নি।

রাশিয়ার ক্রীড়াবিদদের বিরুদ্ধে মাদক গ্রহণের অভিযোগ এবং এ কাজে ক্রীড়াবিদদের প্রতি রুশ সরকারের জড়িত থাকার যে খবর প্রচার করা হচ্ছে তা নাকচ করে দিয়ে পুতিন বলেন, আগামী বছরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হস্তক্ষেপের লক্ষ্যে এই ইস্যুটি সাজানো হয়েছে।

রুশ প্রেসিডেন্ট বলেন, ২০১৮ সালের অলিম্পিক গেমস ওই বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে অনুষ্ঠিত হবে এবং প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের সম্ভাব্য সময় হচ্ছে একই বছরের মার্চ মাস। এ অবস্থায় রাশিয়ার অলিম্পিক ক্রীড়াবিদদের ডোপ টেস্টে ড্রাগ ধরা পড়ার ঘটনায় মস্কোর জড়িত থাকার খবর বিশ্বাসযোগ্যভাবে প্রচার করা সম্ভব হলে রুশ সরকারের প্রতি দেশের জনগণকে ক্ষুব্ধ করে তোলা যাবে।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট আরো বলেন, অলিম্পিক কমিটির বহু কাজ আমেরিকায় সম্পন্ন হয় এবং তারা হোয়াইট হাউজের নীতি অনুসরণ করে।

এই কমিটি গত এক বছরে বহু রুশ ক্রীড়াবিদকে মাদক গ্রহণের দায়ে অভিযুক্ত করে তাদের পদক কেড়ে নিয়েছে। সর্বশেষ বৃহস্পতিবার চার রুশ স্কি খেলোয়াড়কে শক্তিবর্ধক ড্রাগ সেবনের দায়ে অভিযুক্ত করেছে অলিম্পিক কমিটি। ওই চার ক্রীড়াবিদ ২০১৪ সালের অলিম্পিকে পদক পেয়েছিলেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here