রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় ন্যাটোর প্রতি কঠোর হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছে। রুশ সীমান্তের কাছে পরমাণু অস্ত্র ব্যবহার সংক্রান্ত ন্যাটোর যুদ্ধ মহড়াকে কেন্দ্র করে এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করা হয়।

রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগু এক বিবৃতিতে এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন। তিনি বলেন, রুশ-বেলারুশের যৌথ সামরিক মহড়া জাপাদ-২০১৭কে কেন্দ্র করে কোনো কোনো পশ্চিমা সংবাদ মাধ্যম ব্যাপক জল্পনা-কল্পনা ছড়িয়েছে। দুই দেশের সীমান্তের কাছে ন্যাটোর পরমাণু অস্ত্র ব্যবহার বিষয়ক প্রশিক্ষণকে আড়াল করার লক্ষ্যেই এমনটি করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

ন্যাটো দাবি করেছে, বেলারুশ অনুষ্ঠিত জাপাদ-২০১৭ নামের যৌথ সামরিক মহড়ায় অংশ গ্রহণকারী সেনা সংখ্যা কম বলে জানানো হয়েছে।  সেপ্টেম্বর মাসের ১৪ থেকে ২০ তারিখ পর্যন্ত চলেছে এ যৌথ মহড়া।

এ ছাড়া, ন্যাটো আরো দাবি করেছে, বাল্টিক তীরবর্তী দেশগুলোর কাছাকাছি সামরিক সরঞ্জাম স্থায়ী ভাবে সরিয়ে নেয়ার বিষয়টি হয়ত আড়াল করতেই যৌথ এ মহড়া চালিয়েছে রাশিয়া এবং বেলারুশ। ন্যাটোর পূর্বাঞ্চলীয় সদস্য কোনো কোনো দেশ দাবি করেছে, মহড়ায় লক্ষাধিক সেনা নামিয়েছিল মস্কো।

অবশ্য, এ সব অভিযোগ সরাসরি নাকচ করে দিয়েছে রাশিয়া এবং বেলারুশ। যৌথ মহড়া জাপাদ-২০১৭কে নিছক প্রতিরক্ষামূলক হিসেবে উল্লেখ করে দেশ দু’টি বলেছে, এর মাধ্যমে অন্য কোনো দেশকেই হুমকি দেয়া হয়নি।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here