শোবিজ অঙ্গনে যৌন হয়রানির অভিযোগ নতুন কিছু নয়। বেশির ভাগ সময়ই বিষয়টি নিয়ে কথা বলেন না ভুক্তভোগীরা। তবে হলিউড প্রযোজক হার্ভি উইনস্টেইনের যৌন কেলেঙ্কারি ফাঁসের পর অনেকে তাদের তিক্ত অভিজ্ঞতা প্রকাশ করছেন।

কিছুদিন আগে যৌন হয়রানি নিয়ে কথা বলতে গিয়ে প্রিয়াঙ্কা চোপড়া জানিয়েছিলেন, উইনস্টেইনের মতো ব্যক্তি হলিউডের পাশাপাশি বলিউডেও রয়েছেন। তবে সে সময় বিস্তারিত কিছু বলেননি এ অভিনেত্রী। এবার প্রিয়াঙ্কার মা মধু চোপড়া তার মেয়ের কিছু তিক্ত অভিজ্ঞতার কথা জানালেন।

সম্প্রতি ভারতের হায়দরাবাদে অনুষ্ঠিত ২০তম ইন্টারন্যাশনাল চিল্ড্রেনস ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে উপস্থিত হয়েছিলেন মধু চোপড়া। সেখানে বিভিন্ন বিষয়ে কথা বলেন তিনি। এক পর্যায়ে বলিউডে প্রিয়াঙ্কার তিক্ত অভিজ্ঞতা নিয়ে তিনি বলেন, “সে যখন ইন্ডাস্ট্রিতে প্রবেশ করে তখন তার বয়স ছিল ১৭ বছর, তখন থেকে তিন বছর আগে পর্যন্ত প্রতিটা মুহূর্তে আমি তার সঙ্গে থাকতাম। একদিন এক ভদ্রলোক তাকে বলেছিল, ‘তোমার মা বাহিরে বসে থাকুক, আমি তোমাকে চিত্রনাট্য শোনাব।’ প্রিয়াঙ্কা তাকে বলেছিল, ‘যদি এই চিত্রনাট্য আমার মা না শুনতে পারেন, তাহলে আমি এটিতে অভিনয় করতে পারব না।’ সে বড় একটি প্রজেক্ট থেকে বেড়িয়ে এসেছিল।”

“অন্য একবার, এক ডিজাইনার বলেছিলেন, পরিচালক তাকে আটোসাটো পোশাক পরাতে বলেছেন। পরিচালক ডিজাইনারকে বলেছিলেন, ‘মিস ওয়ার্ল্ডকে ক্যামেরার সামনে এনে লাভ কী, যদি তার সৌন্দর্য আমরা না দেখাই?’ প্রিয়াঙ্কা সেই সিনেমাটিতে অভিনয় করেনি। এটি স্বনামধন্য একজন পরিচালকের সিনেমা ছিল এবং তিনি নাখোশ হয়েছিলেন। সেই প্রজেক্ট থেকে বের হয়ে যাওয়ায় ১০টি সিনেমা থেকে বাদ পরেছিল প্রিয়াঙ্কা। কিন্তু সে এটির তোয়াক্কা করেনি। এই কথাটিই আমি সবাইকে বলার চেষ্টা করি। এটিই আপনার জীবনের শেষ নয়, জীবন অনেক মূল্যবান”- বলেন মধু চোপড়া।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here