অবশেষে চান্ডিকা হাথুরুসিংহার সঙ্গে যোগাযোগ করতে পেরেছে বিসিবি। বোর্ডের প্রধান নির্বাহীর সঙ্গে টেলিফোনে কথা হয়েছে তাঁর। তবে এই শ্রীলঙ্কান কোচ আবারও কাজে যোগ দিবেন কি-না সে বিষয়ে এখনও কিছুই জানা যায়নি। হাথুরু না এলে নতুন কোচ নিয়োগে সময় নিতে চাইছে বিসিবি।

পদত্যাগপত্র জমা দেয়ার পর থেকেই চলছিল হাথুরুর সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা। তবে বোর্ড কর্মকর্তাদের ফোন বা ইমেইল, কিছুতেই সাড়া দিচ্ছিলেন না তিন। অবশেষে শুক্রবার রাতে তার সঙ্গে ফোনে কথা বলতে পেরেছেন বের্ডের প্রধান নির্বাহী। তবে হাতুরুর এই হঠাৎ সিদ্ধান্তের কারণ এখনও মেলেনি।

হাথুরুকে কেন্দ্রে রেখেই আগামী বিশ্বকাপের ছক কষেছিলো বিসিবি। তার এই আকস্মিক চলে যাওয়ায় বেকায়দায় পড়েছে বোর্ড। এখন নতুন আঙ্গিকে করতে হচ্ছে পরিকল্পনা। তবে নতুন কোচ প্রশ্নে কোনো তাড়াহুড়ো নেই ম্যানেজমেন্টের।

হাথুরুর এই চলে যাওয়ায় অবাক হয়েছেন সাবেক-বর্তমান সব ক্রিকেটারই। তবে এ নিয়ে খুব বেশি ভাবতে রাজি নন ক্যাপ্টেন মাশরাফী।

শিগগিরই নতুন কোচ পাওয়া না গেলে, আন্তর্বর্তীকালে দেশের কাউকেই দায়িত্ব দিতে চায় বিসিবি। আর তাদের পছন্দের তালিকার প্রথম দিকে আছেন খালেদ মাহমুদ সুজন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here