রাশিয়া অভিযোগ করেছে, মার্কিন নেতৃত্বাধীন পশ্চিমা সামরিক জোট ন্যাটো পরমাণু যুদ্ধের প্রস্তুতি নিচ্ছে। রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগু এই অভিযোগ করেছেন বলে জানিয়েছে মস্কো থেকে প্রকাশিত দৈনিক ‘নাজাভিসিমা গেজেটা’।

সের্গেই শোইগু বলেন, ন্যাটো পারমাণবিক যুদ্ধ শুরু করতে চায় এবং এ লক্ষ্যেই ওই জোট রাশিয়া ও বেলারুশের মধ্যে অনুষ্ঠিত সামরিক মহড়ার বিরুদ্ধে উস্কানিমূলক বক্তব্য দিয়েছে।

গত সেপ্টেম্বর মাসে বেলারুশের একটি অঞ্চলের পাশাপাশি রাশিয়ার সেন্ট পিটার্সবার্গ বন্দরের কাছে ‘জাপাদ-২০১৭’ নামের যৌথ মহড়া চালায় মস্কো ও মিনস্ক। ন্যাটো জোটের পক্ষ থেকে ওই মহড়ার ব্যাপারে নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া জানানো হয়।

এ সম্পর্কে রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী আরো বলেন, তার দেশের সীমান্তে মার্কিন নেতৃত্বাধীন ন্যাটো জোট যে ক্রমবর্ধমান সামরিক তৎপরতা চালাচ্ছে তাকে ধামাচাপা দেয়ার জন্যই জাপাদ-২০১৭’র বিরুদ্ধে অযথা হৈ চৈ শুরু করেছে পশ্চিমা গণমাধ্যমগুলো।

শোইগু বলেন, এমন সময় রাশিয়া ও বেলারুশের যৌথ সামরিক মহড়া বিরোধী প্রচারণা চালানো হচ্ছে যখন এই দুই দেশের সীমান্তে সামরিক শক্তি বৃদ্ধি করেছে ন্যাটো; এমনকি তারা পরমাণু অস্ত্রও মোতায়েন করেছে।

রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, রাশিয়ার পশ্চিম সীমান্তে নতুন নতুন সামরিক ও বিমান ঘাঁটি নির্মাণ করছে মার্কিন নেতৃত্বাধীন ন্যাটো জোট। ন্যাটোর এই তৎপরতা আঞ্চলিক স্থিতিশীলতাকে বিপদের মুখে ঠিলে দেবে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here