ইয়ান ফ্লেমিংয়ের ব্রিটিশ গোয়েন্দাদের কাহিনী নিয়ে নির্মিত জনপ্রিয় চলচ্চিত্র জেমস বন্ড। সিরিজটির পরবর্তী সিক্যুয়েলে জেমস বন্ড চরিত্রে ফিরছেন ড্যানিয়েল ক্রেইগ।

আর শোনা যাচ্ছে ইতালীয় অভিনেত্রী মনিকা বেলুচ্চিও ফিরছেন বন্ড গার্ল হিসেবে!

জেমস বন্ড সিরিজের ‘স্পেকটার’ ছবিতে অভিনয়ের পর ক্রেইগ নিজেই বন্ড গার্ল হিসেবে মনিকা বেলুচ্চিকে চান, এমন গুজবই শোনা যাচ্ছে।

বেলুচ্চির মুখপাত্র সম্প্রতি ভ্যারাইটিকে জানিয়েছেন, মনিকা আসলেই বন্ডের ২৫তম ছবিতে অভিনয় করছেন, এ গুজবের সত্যতা নিশ্চিত করেননি, আবার অস্বীকারও করেননি। বন্ডের পরবর্তী ছবি ২০১৯ সালে মুক্তি পাবে।

ড্যানিয়েল ক্রেইগ এর আগে জানিয়েছিলেন, এরপর আর কোনো বন্ড ছবিতে তিনি অভিনয় করবেন না। কিন্তু এ বছরের আগস্টে তিনি সিদ্ধান্ত পাল্টান। তিনি ঘোষণা দেন, পঞ্চমবারের মতো জেমস বন্ড হিসেবে অভিনয় করতে রাজি আছেন। রজার মুরের পর তিনিই দ্বিতীয় বন্ড অভিনেতা, যিনি এতবার জেমস বন্ড হিসেবে দর্শকদের সামনে এসেছেন।

সম্প্রতি রোমে ভিরনা লিসি লাইফটাইম অ্যাচিভমেন্ট অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে সাংবাদিকরা এ গুজব সম্পর্কে জানতে চাইলে মনিকা উত্তর দেন, ‘আমি কিছুই বলতে পারছি না।

গতানুগতিক ধারা থেকে বেরিয়ে ২০১৫ সালে মুক্তি পাওয়া স্পেকটার ছবিতে মনিকা একমাত্র বয়স্ক বন্ডগার্ল হিসেবে অভিনয় করেন।

তখন তার বয়স ছিল ৫১ বছর। মূল চরিত্র জেমস বন্ড ওরফে ক্রেইগ থেকে মাত্র চার বছরের বড়। কিন্তু বন্ড গার্ল তকমাটা তার পছন্দ ছিল না।

তিনি গার্ডিয়ানকে বলেন, ‘আমি নিজেকে বন্ড গার্ল বলতে পারব না। কারণ এর জন্য আমার বয়স যথেষ্ট বেশি। তার চেয়ে বরং আমি নিজেকে বন্ড লেডি বা বন্ড উইম্যান বলতে চাই। ’

মনিকা অস্ট্রেলিয়ান সায়েন্স ফিকশন হরর ছবি নেক্রোম্যান্সারে অভিনয় করছেন। নেতিবাচক চরিত্রে এবারই প্রথম তিনি অভিনয় করছেন, এমনটাই জানালেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here