জস বাটলারের অর্ধশত এবং ইমরুল-লিটনের কার্যকরী ইনিংসে রাজশাহী কিংসের বিপক্ষে বড় জয় পেল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। রবিবার বিপিএলে দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে নয় উইকেটের জয় পেল ইমরুল-লিটনরা। তিন ম্যাচ খেলে কুমিল্লার এটি দ্বিতীয় জয়। আর চার ম্যাচ খেলে রাজশাহীর এটি তৃতীয় হার।

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচটিতে রাজশাহী কিংসের দেয়া ১১৬ রানের জয়ের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ১৫.১ ওভারে এক উইকেট হারিয়ে জয় তুলে নেয় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স।

বিবার মিরপুরে সন্ধ্যার ম্যাচে টস জিতে রাজশাহীকে আগে ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানান কুমিল্লার অধিনায়ক নবী। তিনিই ভেঙেছেন প্রতিপক্ষের প্রথম জুটি। মুমিনুল হককে মাত্র ২ রানে আউট করেন। প্রথম উইকেট হারানোর পর ভেঙে পড়ে রাজশাহীর ব্যাটিং লাইনআপ। নবীর সঙ্গে বোলিংয়ে উপযুক্ত সঙ্গ দেন রশীদ। ৯১ রানে ৭ উইকেট হারায় রাজশাহী, যার মধ্যে ৫ উইকেট ভাগাভাগি করে নেন এই দুই আফগান।

রাজশাহীর পক্ষে সর্বোচ্চ ৪০ রান করে রিটায়ার্ড হার্ড হন লেন্ডল সিমন্স। ফরহাদ রেজা দ্বিতীয় সেরা ২৫ রান করে অপরাজিত ছিলেন।

নবী সর্বোচ্চ তিন উইকেট নেন, ৪ ওভারে মাত্র ১৫ রান দেন কুমিল্লার অধিনায়ক। সমান ওভার করে ৭ রান দিয়ে দুটি উইকেট নেন রশীদ।

জবাব দিতে নেমে দুর্দান্ত শুরু করেন লিটন দাস। প্রথম ২ ওভার তিনিই ছিলেন স্ট্রাইকিংয়ে, ১২ বলে দুটি করে চার ও ছয়ে ২৩ রান করেন তিনি। দ্বিতীয় ওভারের শেষ বলে ফরহাদ রেজার কাছে বোল্ড হন বাংলাদেশি এই ব্যাটসম্যান। ৭ জন বোলারকে ব্যবহার করেও আর কোনও উইকেট পায়নি রাজশাহী। বাটলার ও ইমরুল অপরাজিত ৯৭ রানের জুটিতে দলকে জেতান। বাটলার ৩৯ বল খেলে চারটি চার ও দুটি ছয়ে ৫০ রানে অপরাজিত ছিলেন। ৪১ বলে চারটি চার ও একটি ছয়ে ৪৪ রানে অপরাজিত ছিলেন ইমরুল।

এই জয়ে ৩ ম্যাচে ৪ পয়েন্ট নিয়ে কুমিল্লা উঠে গেছে পয়েন্ট টেবিলের তিন নম্বরে। সমান পয়েন্ট নিয়ে তাদের উপরে ও নিচে ঢাকা ডায়নামাইটস ও খুলনা টাইটানস। রাজশাহী ৪ ম্যাচে মাত্র ২ পয়েন্টে সবার শেষে। ৫ ম্যাচে ৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে সিলেট সিক্সার্স।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

ফল: নয় উইকেটে জয়ী কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স।

রাজশাহী কিংস ইনিংস: ১১৫/৭ (২০ ওভার)

(লেন্ডল সিমন্স ৪০, মুমিনুল হক ২, রনি তালুকদার ০, মুশফিকুর রহিম ১৬, জেমস ফ্রাঙ্কলিন ৭, মেহেদী হাসান মিরাজ ৬, ম্যালকম ওয়ালার ১, ফরহাদ রেজা ২৫*, নিহাদুজ্জামান ২, মোহাম্মদ সামি ১০*, আরাফাত সানি ০/২২, মোহাম্মদ নবী ৩/১৫, আল-আমিন হোসেন ১/২৪, রশীদ খান ২/৭, ডোয়াইন ব্রাভো ১/২৮, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন ০/১৮)।

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ইনিংস: ১২০/১ (১৫.১ ওভার)

(লিটন দাস ২৩, জস বাটলার ৫০*, ইমরুল কায়েস ৪৪*; মোহাম্মদ সামি ০/১৩, ফরহাদ রেজা ১/৩১, মেহেদী হাসান মিরাজ ০/১৩, কেজরিক উইলিয়ামস ০/৩৩, জেমস ফ্রাঙ্কলিন ০/৮, নিহাদুজ্জামান ০/১৬, ম্যালকম ওয়ালার ০/৬)।

প্লেয়ার অব দ্য ম্যাচ: রশীদ খান (কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স)।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here