ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে ইংল্যান্ড ও ব্রাজিলের প্রীতি ম্যাচ গোলশূন্য ড্র হয়েছে। দুই দল চেষ্টা করেও পায়নি গোলের দেখা। এনিয়ে চারদিনের মধ্যে টানা দ্বিতীয় ম্যাচে গোলশূন্য ড্র করলো ইংল্যান্ড। আগের ম্যাচে জার্মানির বিপক্ষেও তাদের স্কোর একই ছিল। অন্যদিকে জাপানের বিপক্ষে ৩-১ গোলে জেতার পর ব্রাজিলকে হতাশ হতে হলো ইংল্যান্ড সফরে।

ম্যাচের শুরু থেকেই মুহূর্মুহু আক্রমণে ইংল্যান্ডকে ব্যতিব্যস্ত রাখে ব্রাজিল। তবে চীনের প্রাচীর হয়ে দাঁড়ায় ইংল্যান্ড রক্ষণভাগ। ফলে ৬৫% বল রেখেও প্রথমার্ধে কাঙ্ক্ষিত সাফল্য থেকে বঞ্চিত হয় সেলেকাওরা। কয়েকবার প্রতি আক্রমণে গেলেও গোল আদায় করতে পারেনি ইংল্যান্ড। এতে গোলশূন্য ড্র নিয়ে বিরতিতে যায় দু’দল।

বিরতি থেকেই ফিরে একই হারে আক্রমণ করে যায় ব্রাজিল। অবশ্য এ অর্ধে গোল পেতে পারত পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। তবে ভাগ্য সহায় না হওয়ায় তা হয়নি।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই গোলের দেখা পেয়ে যাচ্ছিল ব্রাজিল। এসময় দানি আলভেজকে বল তৈরি করে দেন  নেইমার। অধিনায়কও গোল পোস্ট লক্ষ্য করে বজ্র গতির শট নেন। তবে তা অনন্য নৈপুণ্যে ঠেকিয়ে দেন ইংল্যান্ড গোলরক্ষক জো হার্ট।

৭৫ মিনিটে গোলের অপেক্ষার শেষ হতে পারত ব্রাজিলের। তবে ফুটবল ঈশ্বর বিমুখ হওয়ায় তা আর হয়নি। ওই সময় প্রায় ২৫ গজ দূর থেকে নেয়া ফার্নান্দিনহোর জোরালো শট গোলরক্ষককে পরাস্ত করলেও পোস্টে লেগে ফিরে আসে।

এদিন যেন গোলবারের অতন্দ্র প্রহরী হয়ে দাঁড়ান জো হার্ট। ম্যাচের ৮৫ মিনিটে দুরুহ কোণ থেকে নেয়া  পাওলিনহোর দুর্দান্ত শট ঠেকান তিনি।

এ ম্যাচ দিয়ে ২৭বার মুখোমুখি হলো ব্রাজিল-ইংল্যান্ড।  ১১ বার জিতেছে ব্রাজিল, ৪টি ইংল্যান্ড। আর এ ড্র হলো ১২বার।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here