হালের জনপ্রিয় মডেল ও অভিনেত্রী মৌসুমী হামিদ। সবাই যখন তথাকথিত রোমান্স ড্রামার চিত্রনাট্য নিয়ে ব্যস্ত। সেখানে তিনি খুঁজে বেড়াচ্ছেন ভিন্ন ধর্মী কিছু। সেই ভাবনা থেকেই করেছেন গোলাপজান’, ‘লায়লা লাঠিয়াল’ এর মত নারী প্রধান চরিত্রে অভিনয়। জনপ্রিয়তা যেমন পেয়েছেন তেমনি পেয়েছেন প্রশংসা। সাম্প্রতিক সময়ে এই ধরনের কাজের প্রস্তাবই পাচ্ছেন, আর তিনি করতেও আগ্রহী এই ঘরানার কাজ।

এদিকে ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ নিয়ে নির্মিত সুমন আনোয়ারের ‘নাটকের যুদ্ধ, যুদ্ধের নাটক’-এর কাজ শেষ করেছেন তিনি। এই নাটকে কাজ করার অভিজ্ঞতা নিয়ে মৌসুমী বলেন, মফস্বলের একটি থিয়েটার দল ৭ মার্চের ভাষণের ওপর নির্ভর করে একটি নাটক মঞ্চায়নের পরিকল্পনা করে। কিন্তু নাটক মঞ্চায়ন করতে গিয়ে তারা নিজেরাই আরেকটি নাটকের মুখোমুখি হয়। আমি সে নাট্যদলেরই একজন। এতে অভিনয় করতে গিয়ে প্রতি মুহূর্তে শিহরিত হয়েছি। নিজের অজান্তেই চরিত্রের গভীরে ডুবে ছিলাম। যুদ্ধ না করলেও সে সময়কে উপলব্ধি করতে পেরেছি।

তিনি আরও বলেন, এ ধরনের সংগ্রামী চরিত্র নিজেকে অনেক সমৃদ্ধ করে, অভিনয়ের প্রতি ভালোবাসা বাড়ায়। ভবিষ্যতে এ ধরনের নাটকে আরও কাজ করতে চাই।

নাটকটি আসছে বিজয় দিবসে বাংলাভিশনে প্রচার হবে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here