চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের সঙ্গে নগরের গোলপাহাড় এলাকার স্থানীয় তরুণদের সংঘর্ষ হয়েছে। নগরের জিইসি মোড় এলাকায় অবস্থিত মেট্রোপলিটন হাসপাতালের এক চিকিৎসককে মারধর করা নিয়ে সোমবার রাত ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এতে অন্তত আটজন আহত হয়েছেন।

মেট্রোপলিটন হাসপাতালের মহাব্যবস্থাপক মোহাম্মদ সেলিম বলেন, সোমবার রাতে হাসপাতালের সিসিইউতে দায়িত্ব পালন করছিলেন চিকিৎসক মো. আশফাক। রাত ১০টার দিকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের পঞ্চম বর্ষের তিন ছাত্র হঠাৎ করে হাসপাতালের সিসিইউতে প্রবেশ করে আশফাককে মারধর করতে থাকেন। একপর্যায়ে তাঁকে হাসপাতাল থেকে টেনেহিঁচড়ে করে বাইরে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করা হয়। এ সময় ওই ছাত্রদের গতিরোধ করেন স্থানীয় গোলপাহাড় এলাকার কয়েকজন তরুণ। পরে মেডিকেল কলেজ থেকে ছাত্রলীগের আরও কয়েকজন ছুটে আসেন। এরপর উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নগরের চকবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নুরুল হুদা। তিনি বলেন, মেট্রোপলিটন হাসপাতালে এক চিকিৎসকের সঙ্গে মেডিকেল কলেজের ছাত্রদের ঝামেলা হয়েছে। এ নিয়ে গোলপাহাড় এলাকার তরুণদের সঙ্গে মেডিকেলের ছাত্রদের মারামারির ঘটনা ঘটে। এতে ৩-৪ জন আহত হয়েছেন।

এই ঘটনায় আহতদের মধ্যে রয়েছেন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ছাত্র সংসদের সাধারণ সম্পাদক জামিউর রহমান। তাঁকেসহ আটজনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানান হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির তত্ত্বাবধায়ক পরিদর্শক জহিরুল ইসলাম। স্থানীয় তরুণদের হামলায় মেডিকেল কলেজের ছাত্ররা আহত হয়েছেন বলে জানান ছাত্রসংসদের সাবেক ভিপি আরমান উল্লাহ চৌধুরী।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here