আলোচিত নায়ক অনন্ত জলিলকে এখন দেখা যায় কোনো ওয়াজ মাহফিলে, কিংবা মসজিদে তাবলীগে। শোবিজ জগত থেকে নিজেকে যোজন যোজন দূরে নিয়ে গেছেন। শুধু তাই নয়, সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকেও চালাচ্ছেন ইসলামের জোর প্রচারণা।

সেই ভাব আবেগ থেকে ঘোষণা দিয়েছিলেন চলচ্চিত্রের সাথে ঠিকই থাকবেন, তবে অন্য ভাবে। বলেছিলেন, সাহাবীদের জীবনী নিয়ে ছবি নির্মাণ করবেন।

কিন্তু হঠাৎ সাহাবীদের জীবনী নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণ থেকে নিজেকে গুটিয়ে নিলেন চিত্রনায়ক, প্রযোজক ও পরিচালক অনন্ত জলিল। গতকাল এক ফেসবুক পোস্টে সাহাবীদের জীবনী নিয়ে অনন্ত জলিল চলচ্চিত্র নির্মাণ না করার আহবান জানান সবাইকে।

তার করা ওই পোস্টটি পাঠকের জন্য তুলে ধরা হলো-

বন্ধুগণ, আসসালামু আলাইকুম ওয়া রহমাতুল্লাহি ওয়া বারাকাতুহু।

আমি আল্লাহর রহমতে ও আপনাদের দোয়ার বরকতে, আলহামদুলিল্লাহ দ্বীনের রাস্তায় চলার চেষ্টা করতেছি এবং শিখতেছি।

কিছুদিন আগে বলেছিলাম, আমি সাহাবীদের জীবনী নিয়ে একটি চলচ্চিত্র নির্মাণ করবো। যাতে করে তরুণ প্রজন্ম আরো বেশি সাহাবীদের জীবন সমন্ধে অবগত হতে পারে। যেহেতু আমি দ্বীনের রাস্তায় নতুন, তাই আলেম ওলামাদের সাথে পরামর্শ করে জানতে পারলাম যে, সাহাবীদের জীবনী নিয়ে সরাসরি চলচ্চিত্র নির্মাণ করা জায়েজ নহে।

তবে মিডিয়ার মাধ্যমে সঠিক ইসলাম তরুণ প্রজন্মের মধ্যে প্রচার করাই আমার মূল লক্ষ্য। কারণ মিডিয়ার মাধ্যমে খুব দ্রুত তথ্য অনেক মানুষের কাছে পৌঁছে দেয়া যায়।

আমরা জানি, সঠিক ইসলামের জ্ঞান না থাকার কারণে কিছু পথভ্রষ্ঠ মানুষ আমাদের তরুণ প্রজন্মকে ইসলামের নামে বিপদগামী করছে। ইসলাম হচ্ছে শান্তির ধর্ম, ইসলামে সন্ত্রাসের কোনো জায়গা নেই। তাই আমি আলেম ওলামাদের সাথে পরামর্শ করে মিডিয়ার মাধ্যমে কিভাবে সঠিকভাবে ইসলাম প্রচার করা যায় তার চেষ্টা করবো ইনশাল্লাহ।

আপনারা আমার জন্য দোয়া করবেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here