উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগে ‘ই’ গ্রুপের ম্যাচে লিভারপুলের সাথে ৩-৩ গোলের নাটকীয় ড্র করেছে সেভিয়া। ১২ বছর আগের ‘মিলানীয়’ রোমাঞ্চ দেখল ইংলিশ ক্লাব লিভারপুল। এবারের রোমাঞ্চটা অলরেডদের জন্য অবশ্য বিপরীত। ২০০৫ সালে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে এসি মিলানের বিপক্ষে ৩-০ গোলে পিছিয়ে থেকেও ইস্তাবুলের আতাতুর্ক স্টেডিয়ামে সেদিন ম্যাচ জিতেছিল তারা। কিন্তু এবার গ্রুপপর্বের ম্যাচে সেভিয়ার বিপক্ষে তিন গোলে এগিয়ে থেকেও শেষ পর্যন্ত ড্র করেছে। ফলে নকআউট পর্বে যাওয়ার রাস্তাও ঝুলে গেছে ইয়ুর্গেন ক্লপের দলের।

সেভিয়ার ঘরের মাঠে দারুণ এক রোমাঞ্চকর ম্যাচ উপহার দিয়েছে দুদল। ব্রাজিলিয়ান রবার্তো ফিরমিনোর জোড়া গোলে প্রথমার্ধে ৩-০ গোলে এগিয়ে যায় লিভারপুল। অন্য গোলটি করেন সাদিও মানে।

কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধে দারুণভাবে ফিরে আসে সেভিয়া। ৫১ ও ৬০ মিনিটে দলের হয়ে ব্যবধান কমান বেন ইয়েদের। এরপর শেষ মুহূর্তে পিজারুর গোলে লিভারপুলের বিপক্ষে সমতা নিয়ে মাঠ ছাড়ে ‌সেভিয়া। এই ড্রয়ের ফলে ঝুলে থাকল লিভারপুলের নকআউট পর্বে খেলার সম্ভাবনাও।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here