উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগে গ্রুপপর্বে দারুণ অবস্থানে থেকেই জুভেন্টাসের মুখোমুখি হয় বার্সেলোনা। সিরি’আ চ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে হাই-ভোল্টেজ ম্যাচটি গতকাল গোলশূন্য ড্র হয়। ইতালিয়ান জায়ান্টদের বিপক্ষে গোলশূন্য ড্র করলেও ‘ডি’গ্রুপের পয়েন্ট তালিকায় শীর্ষে থেকে শেষ ষোলো নিশ্চিত করেছে কাতালান ক্লাবটি।

‘ডি’ গ্রুপে ৫ ম্যাচে ১১ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে বার্সেলোনা। জুভেন্টাসের পয়েন্ট ৮। ইতালিয়ান জায়ান্টরাও শেষ ষোলোর পথেই আছে। নক আউট পর্বের আশা বাঁচিয়ে রেখেছে গ্রুপের অন্য দল অলিম্পিয়াকোসও। একই রাতে পর্তুগালের স্পোর্টিং সিপিকে ৩-১ গোলে হারিয়ে ৭ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ টেবিলের তিনে গ্রিসের দলটি।

তবে স্পোর্টিংয়ের চেয়ে একঅর্থে শেষ ষোলোর দৌড়ে এগিয়ে জুভেন্টাসই। গ্রুপের শেষ ম্যাচে ৬ ডিসেম্বর অলিম্পিয়াকোসের মাঠে নামবে জুভরা। সেখানে একই রাতে স্পোর্টিংকে পরীক্ষা দিতে হবে বার্সার মাঠে।

ন্যু ক্যাম্পে প্রথম লেগে জুভেন্টাসকে ৩-০ গোলে হারিয়েছিল বার্সেলোনা। ম্যাচে জোড়া গোল করেছিলেন লিওনেল মেসি। সেই মেসিকে সাইডবেঞ্চে রেখেই একাদশ সাজিয়েছিলেন কোচ ভালভার্দে। আক্রমণে সেটির ছাপ পড়েছে স্পষ্ট।

ঘরের মাঠে প্রথম জোড়াল আক্রমণটি গড়েছে জুভেন্টাসই। ১৯ মিনিটে পাওলো দিবালার সেই প্রচেষ্টায় দেয়াল হয়ে দাঁড়ান অতিথি গোলরক্ষক আন্দ্রে টের স্টেগেন। ২২ মিনিটের সময় রাকিটিচের ফ্রি-কিক পোস্টে লেগে ফেরত আসে।

গোলশূন্য প্রথমার্ধের পর দ্বিতীয়ার্ধে মেসি ম্যাজিকের আশায় নড়েচড়ে বসেন সকলে। ৫৬ মিনিটে জেরার্ড দেলেফেউকে উঠিয়ে মেসিকে পাঠান কোচ। ৬৪ মিনিটে ফ্রি-কিক ক্রসবারের অনেকটা উপর দিয়ে মেরে প্রথম সুযোগটি নষ্ট করেন মেসি। ম্যাচের বাকি অংশে তাতেই আটকে থাকে তার ঝলকের প্রত্যাশা। ম্যাচও শেষ হয় গোলশূন্য ড্রয়েই।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here