২০১৮ সালের রাশিয়া বিশ্বকাপের টিকিট ইতোমধ্যে নিশ্চিত করেছে ৩২টি দল। সেই দলগুলোর মধ্যে জায়গা করে নিতে ব্যর্থ হয়েছে ফুটবলের পরাশক্তি ইতালি।

তবুও সেই ইতালিকেও রাশিয়া বিশ্বকাপে দেখা যেতে পারে। এমনই একটি সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে।

জানা গেছে, রাশিয়া বিশ্বকাপের টিকিট নিশ্চিত করা দেশ পেরুর সংসদে একটি বিল উত্থাপন করা হয়েছে। যে বিলটি পাস হলে স্বায়ত্ত্বশাসন হারাতে পারে পেরু ফুটবল ফেডারেশন। এতে বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতাও হারাতে পারে দলটি। আর পেরু বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে পড়লে ইতালি অথবা চিলির খেলার সম্ভাবনা তৈরি হবে।

বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে ব্রাজিলের কাছে ৩-০ গোলে হেরে মূলপর্বে খেলার স্বপ্ন শেষ হয়েছে চিলির। ইতালি অবশ্য প্লে-অফ পর্যন্ত গিয়েছিল। কিন্তু সুইডেনের কাছে হেড টু হেডে হেরে দীর্ঘ ৫৯ বছর পর বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে পড়েছে চারবারের চ্যাম্পিয়নরা।

আর নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে শেষ ম্যাচে ২-০ গোলের জয় নিয়ে ৩২তম দল হিসেবে বিশ্বকাপে পা রেখেছে পেরু। তবে ইতালিয়ান সংবাদপত্র ‘লিবারো’-এর এক প্রতিবেদনে উঠে এসেছে, বিশ্বকাপে শেষ পর্যন্ত না-ও খেলা হতে পারে পেরুর।

কেননা কোনো দেশের ফুটবল ফেডারেশনে সরকারের হস্তক্ষেপ ফিফা কর্তৃক নিষিদ্ধ। সেটা হলে ফেডারেশনকেই নিষিদ্ধ করে দিতে পারে ফিফা।

এমন হলে ইতালি বা চিলির মধ্যে থেকে একটি দল খেলে ফেলতে পারবে বিশ্বকাপ।

ফিফার সংবিধানের ৭ নাম্বার অনুচ্ছেদে বলা আছে, ‘যদি কোনো সংস্থাকে (বিশ্বকাপের ৩২টি দল থেকে) নিষিদ্ধ করা হয় কিংবা রেস থেকে বাদ দেওয়া হয়, তবে ফিফার সাংগঠনিক কমিটি তার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে এবং প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করবে। ’

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here