উত্তর কোরিয়াকে সন্ত্রাসবাদের সমর্থক দেশগুলোর তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করার ফলে গোটা বিশ্বে ভয়াবহ বিপর্যয় নেমে আসতে পারে বলে আমেরিকাকে সতর্ক করে দিয়েছে রাশিয়া। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া জাখারোভা বৃহস্পতিবার মস্কোয় এক সংবাদ সম্মেলনে এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন।

তিনি বলেন, উত্তর কোরিয়াকে সন্ত্রাসবাদে মদদ দেয়ার দায়ে অভিযুক্ত করে সংকটের সমাধান করা যাবে না বরং এর ফলে পরিস্থিতি আরো খারাপ হবে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প গত সোমবার ঘোষণা করেন, তিনি সন্ত্রাসবাদে সমর্থনকারী দেশগুলোর তালিকায় উত্তর কোরিয়ার নাম অন্তর্ভুক্ত করেছেন। তার এ ঘোষণার পর পিয়ংইয়ংয়ের বিরুদ্ধে নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে ওয়াশিংটন।  উত্তর কোরিয়া মার্কিন সরকারের এ পদক্ষেপকে ‘উস্কানিমূলক’ ও ‘লজ্জাজনক’ বলে অভিহিত করেছে।

ওয়াশিংটন বলেছে, উত্তর কোরিয়াকে পরমাণু অস্ত্র ও দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালানো থেকে বিরত রাখতেই নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

কোরীয় উপদ্বীপে সাম্প্রতিক সময়ে উত্তেজনা বেড়ে যাওয়ার পেছনে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র অন্যতম নিয়ামক ভূমিকা পালন করেছে। ওই অঞ্চলে দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে নিয়মিত সামরিক মহড়া চালিয়ে উত্তর কোরিয়াকে সামরিক খাত ব্যয় বাড়াতে উস্কানি দিচ্ছে ওয়াশিংটন। একইসঙ্গে উত্তর কোরিয়াকে গণবিধ্বংসী অস্ত্রের পরীক্ষা চালাতেও নিষেধ করছে মার্কিন সরকার।

কিন্তু উত্তর কোরিয়া বরাবরই বলে এসেছে, দেশটির বিরুদ্ধে আমেরিকা ও তার মিত্রদের হুমকি বন্ধ না হলে নিজের ক্ষেপণাস্ত্র ও পরমাণু অস্ত্র কর্মসূচি স্থগিত করবে না পিয়ংইয়ং। এদিকে ট্রাম্প উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার হুমকি দিয়েছেন এমনকি তিনি জাতিসংঘের বার্ষিক অধিবেশনে ভাষণ দিতে গিয়ে দেশটিকে ‘পুরোপুরি ধ্বংস’ করে ফেলার কথাও  মুখে উচ্চারণ করেছেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here