কাতারের পরররাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ আবদুর রহমান আলে সানি বলেছেন, সৌদি আরবের নীতির কারণে মধ্যপ্রাচ্যের শান্তি হুমকির মুখে পড়েছে এবং সৌদি নীতি এ অঞ্চলকে বিভক্ত করে দিচ্ছে। তিনি সৌদি আরবের নীতিকে ‘আবেগতাড়িত’ ও ‘সংকট সৃষ্টিকারী’ বলে অভিহিত করেন।

ব্রিটেনের রাজধানী লন্ডনে গতকাল (বৃহস্পতিবার) আয়োজিত সন্ত্রাস-বিরোধী এক সম্মেলনে কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এসব কথা বলেছেন। তিনি বলেন, “আমি এ সম্মেলনে যোগ দিতে এসেছি চরমপন্থায় পরিপূর্ণ একটি অঞ্চল থেকে।” তিনি আরো বলেন, “যদিও মধ্যপ্রাচ্য এক সময় শান্তি ও সহাবস্থানের জন্য উপযুক্ত ছিল কিন্তু এখন তা দুঃখজনকভাবে সন্ত্রাসী ও চরমপন্থীদের অঞ্চলে পরিণত হয়েছে যেখানে রাষ্ট্রীয়ভাবে সন্ত্রাসীদের পৃষ্ঠপোষকতা দেয়া হয়।”

মধ্যপ্রাচ্যে সৌদি আরবের নীতির সমলোচনা করে কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এ অঞ্চলে সন্ত্রাসের মূল কারণ হলো ‘স্বৈরশাসন এবং কর্তৃত্বপরায়ণতা ও ন্যায়বিচারের অভাব। পরে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ইয়েমেনে আজ যে মানবিক বিপর্যয় দেখা দিয়েছে তার জন্য সরাসরি সৌদি আরব দায়ী। তিনি বলেন, ইয়েমেন ইস্যুতে রাজনৈতিক অচলাবস্থা দেখা দিয়েছে এবং পরিস্থিতি দিন দিন খারাপের দিকে যাচ্ছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here