মৃত্যুর পরের জীবনে ক্ষুধার্ত থাকতে চান না আমেরিকার ফিলাডেলফিয়ার রিচার্ড লুসসি। এটা বলে প্রায়ই মজা করতেন তিনি।

কিন্তু মৃত্যুর আগে তার কৌতুক যে সত্যিকার চাওয়া ছিল তা কেন জানতো! ৭৬ বছর বয়সী ভদ্রলোক আসলেই চাইলেন যে, মৃত্যুর পর তাকে যেন পনির মেশানো মাংসের সঙ্গে কবরস্থ করা হয়। তাও যেকোনো দোকানের খাবার হলে চলবে না। ফিলাডেলফিয়ার একটি দোকানের খাবারই তার সবচেয়ে প্রিয়। ওটার নাম প্যাটস কিং অব স্টেকস।

তার নাতী ডমিনিক লুসসিকে মৃত্যুর আগে শেষ ইচ্ছার কথা জানিয়েছিলেন তিনি। বলেছিলেন যে, প্যাটস কিং অব স্টেকস এর চিজস্টেকস যে যেন তার মৃতদেহের সঙ্গে দিয়ে দেওয়া হয়। এটা এক স্যান্ডউইচ। তার মধ্যে থাকে চিজ আর মাংস।

প্লেইন্স টাউনশিপে ছিল রিচার্ড লুসসির বাস।

তিনি ফিলাডেলফিয়া স্পোর্টস টিমের দারুণ ভক্ত ছিলেন। আর সেই খাবারের দোকানের প্রতিও তার গভীর ভালোবাসা গড়ে ওঠে।

তার ছেলে জন লুসসি জানান, এখানে চিজস্টেকস বিক্রি করে এমন আরও অনেক দোকান রয়েছে। কিন্তু বাবার কারণে অন্য জায়গার সেই খাবার আর কখনই খাওয়া হয়নি। চিকিৎসক এই খাবার খেতে বাবাকে মানা করার পরও তিনি নিয়মিত খেতেন। এতটাই ভক্ত ছিলেন তার।

বাড়িতে বসে প্রায়ই পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের এই চিজস্টেকস স্যান্ডউইচ এনে দিতে বলতেন। আড়াই ঘণ্টা গাড়ি চালিয়ে সেই খাবার এনে দিতে হতো।

পরিবারের এই অভিভাবকের শেষ ইচ্ছা তাই পূরণ করতে চাইলেন ছেলে আর নাতী। তারা কফিনে দেওয়ার জন্যে আনলেন চিজস্টেকস।

এদিকে, এ ঘটনা জেনে আবেগতাড়িত হয়েছেন ওই দোকানের মালিক ফ্রাঙ্ক ওলিভেরি জুনিয়র। তার বানানো একটা খাবারের এত বড় ভক্ত রয়েছে জেনে তিনি সত্যিই আপ্লুত।

সূত্র : এমিরেটস

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here