উচ্চ রক্তচাপকে বলা হয় ‘নীরব ঘাতক’। উচ্চ রক্তচাপের আগের থেকে কোনো লক্ষণও দেখা যায় না। এছাড়াও উচ্চ রক্তচাপ হার্ট এটাক, ডায়াবেটিস এবং হৃদযন্ত্রের ক্রিয়াও বন্ধ হওয়ার কারণ। উচ্চ রক্তচাপের কারণে অনেকের দৃষ্টি শক্তিও কম হতে দেখা যায়। তবে এই পাঁচটি ভেষজ মসলা যদি নিয়মিত আপনার খাবার তালিকায় থাকে তাহলে নিয়ন্ত্রণে থাকবে রক্তচাপ। ভেষজগুলো হল-

.পুদিনা: পুদিনা শুধু খাবারের একটি উপাদানই নয়। বরং উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে কার্যকরি ভূমিকা রাখতে পারে পুদিনা। ইতালীয় বিভিন্ন খাবার যেমন পিজ্জা বা পাস্তায় ব্যবহার করা যেতে পারে পুদিনা। এছাড়াও দিনে অন্তত একবার পুদিনা পাতার শরবত খেলে উপকার পাওয়া যাবে।

.দারুচিনি: দারুচিনিকে বহুমাত্রিকভাবে ব্যবহার করা যায়। উপমহাদেশের রান্নায় দারুচিনি এমনিতেই অনেক জনপ্রিয়। দারুচিনি উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণের পাশাপাশি ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। খাবার রান্না ছাড়াও চা, কফি এবং শুকনো খাবারের সাথেও দারুচিনিকে রাখা যায়। এমনকি শুধু দারুচিনিও চিবিয়ে খাওয়া যেতে পারে।

. এলাচ: খাবারের মধ্যে কামড়ে এলাচ পরলে যতটা খারাপ লাগে, ভেষজ গুণাগুণে ততটাই সমৃদ্ধ এলাচ। আপনার প্রতিদিনকার খাবারে যদি এলাচ থাকে তাহলে কয়েক মাসের মধ্যেই উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন দেখতে পারবেন। চা বা অন্যান্য পানীয় ছাড়াও বিভিন্ন খাবারে স্বাদ বৃদ্ধিতে এলাচ ব্যবহার করা যেতে পারে। স্বাদের পাশাপাশি খাবারে একটি সুঘ্রাণেরও ব্যবস্থা করবে এলাচ।

.শণ বীজ: উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে ওমেগা-৩ ফ্যাটি এসিডের কার্যকরী ভূমিকার প্রমাণ পাওয়া গেছে। আর এই এসিডের উত্তম যোগানদাতা শণ বীজ। এছাড়াও এন্টিঅক্সিডেন্ট হিসেবেও কাজ করে এ বীজ। যে কারণে রক্তে গ্লুকোজের পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে রাখতেও কাজ করে। স্যুপ, স্মুথি এবং কাক জাতীয় খাবারে ব্যবহার করা যেতে পারে শণ বীজ।

. আদা: আদা রক্ত নালীকে প্রসারিত রাখতে সাহায্য করে। যে কারণে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে কাজ করে আদা। স্বাভাবিক রক্তপ্রবাহে এবং উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে আদা।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here