কট্টরপন্থী মৌলবাদী সংগঠনের চাপের মুখে অবশেষে পদত্যাগ করলেন পাকিস্তানের আইনমন্ত্রী জাহিদ হামিদ। দীর্ঘ টালবাহানার পর সোমবার পাক প্রধানমন্ত্রী আব্বাসির কাছে পদত্যাগপত্র জমা দেন তিনি। পাকিস্তানের নিউজ এজেন্সি অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস অব পাকিস্তান-এ (এপিপি) এই খবরটি প্রকাশিত হয়েছে। তবে কোন সূত্র থেকে এই খবরটি করেছে এপিপি এবং পদত্যাগপত্র জমা দেওয়ার খবর ছাড়া এই বিষয়ে আর কোনও তথ্য প্রকাশ করেনি তারা।

আইন করে পাকিস্তানের জনপ্রতিনিধিদের শপথবাক্যে বদল আনেন জাহিদ হামিদ। তার পর থেকেই উত্তাল হয়ে ওঠে পাকিস্তান। আইনমন্ত্রীর পদত্যাগের দাবিতে তেহরিক-ই-ইনসাফ, তেহরিক-ই-লাবাইকের মতো কট্টরপন্থী মৌলবাদী সংগঠনগুলি বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে। গত প্রায় দু’সপ্তাহ ধরে ইসলামাবাদের মূল রাস্তাগুলি অবরোধ করে রাখে এই সংগঠনগুলির হাজার হাজার সমর্থক। শনিবার অবরোধ তুলতে গেলেই রীতিমতো হিংসার চেহারা নেয় এই বিক্ষোভ-অবরোধ। পুলিশকে লক্ষ করে ইট-পাথর ছোড়ে সমর্থকেরা। রাস্তায় দাঁড় করানো পুলিশের গাড়িতে আগুন জ্বালিয়ে দেওয়া হয়। ভাঙচুর চালানো হয় আইনমন্ত্রীর বাড়িতেও। বিক্ষোভ ক্রমে লাহৌর, করাচি-সহ অন্য শহরগুলিতেও ছড়িয়ে পড়ছিল। সেই চাপের মুখে পড়েই আইনমন্ত্রীর এই পদত্যাগের সিদ্ধান্ত।

তেহরিক-ই লাবাইক সমর্থকদের বিক্ষোভ। ছবি :রয়টার্স।

সংবাদমাধ্যমকে হামিদ বলেন, ‘‘শপথবাক্যে এই আইন আনার জন্য আমি একা দায়ী নই। কিন্তু দেশের শান্তি রক্ষার জন্য পদত্যাগ করলাম।’’

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here