চোখে যখন ছানি. সময়মতো ছানির অপারেশন না করালে সম্পূর্ণ অন্ধ হতে পারে চোখ। তাই চোখের ছানি অপারেশন করা হয়।

আর শুধু চোখের ছানি না, প্রায় সব কিছুই অপারেশন করা হয় হাসপাতালে। আর সেলুনের কাজ চুল ও দাড়ি কামানো। কিন্তু সেই সেলুনে যদি নিয়মিতই চোখের ছানি কাটা হয়, তাহলে বিষয়টি অবাক করবে এটাই স্বাভাবিক!

তবে এমন অবাস্তব ঘটনাই ঘটিয়ে চলছেন চীনের নাগরিক জিওং গাওউ। সেটি আবার এক-দুবারের জন্য নয়। দীর্ঘ ৪০ বছর ধরে ওই সেলুনে চোখের ছানি কাটা হয়। খবর ডেইলি মেইলের।

৬২ বছর বয়সী জিওং গাওউ চীনে ‘আইবল শেভার’ হিসেবে খুবই প্রসিদ্ধ। ৪০ বছরে তিনি বহু মানুষের চোখের ছানি কেটেছেন। তবে এ পর্যন্ত কেউ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বা অসুবিধার শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ করেনি।

মানুষ হাসপাতাল রেখে কেন সেলুনে আসেন তা জানতে চাইলে স্থানীয়রা জানান- মানুষের বিশ্বাস, চোখের মণি কামালে দৃষ্টিশক্তি বাড়ে। জিওং গাওউ পেশায় ক্ষৌরকার। কিন্তু তার আসল কেরামতি মাত্র ৫ মিনিটে চোখের মণি কামিয়ে ফেলা। অত্যন্ত ধারালো ক্ষুর দিয়ে অতি দক্ষ হাতে গাওউ তার কাজ সারেন। চোখের মণির সঙ্গে অবশ্য তিনি চোখের পাতাও কামিয়ে দেন।

চোখের পাতার ভেতর দিকের বৃদ্ধি মানুষের দৃষ্টিশক্তি কমিয়ে দেয়। জিওং গাওউ এই ভেতর দিকের চোখের পাতার এই বেড়ে যাওয়া অংশকেই কামিয়ে দেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here