মিয়ানমারে সেনাবাহিনীর নির্যাতনের মুখে রাখাইন রাজ্যে সৃষ্ট রোহিঙ্গা সঙ্কটের টেকসই সমাধান নিশ্চিতে কম্বোডিয়ার সহযোগিতা চেয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সোমবার নমপেনে দুই দেশের দ্বিপক্ষীয় বৈঠকের পর কম্বোডিয়ার প্রধানমন্ত্রী হুন সেনের সঙ্গে এক বিবৃতিতে শেখ হাসিনা এ কথা জানান।

দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে সাম্প্রতিক কিছু আঞ্চলিক নিরাপত্তা চ্যালেঞ্জের বিষয়ে দুই পক্ষের আলোচনা হয়েছে—এ কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, দুই পক্ষই সন্ত্রাস ও উগ্রবাদের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকারের কথা বলেছে। আমরা রোহিঙ্গা সঙ্কট নিয়েও কথা বলেছি, যা আমাদের আঞ্চলিক স্থিতিশীলতা ও শান্তি বিনষ্টের হুমকি তৈরি করছে।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশকে এখন ১০ লাখের বেশি রোহিঙ্গার ভার বইতে হচ্ছে— যাদের মধ্যে প্রায় ছয় লাখ ৩০ হাজার মানুষ মিয়ানমারে সাম্প্রতিক সহিংসতার কারণে পালিয়ে আসতে বাধ্য হয়েছে।

রোহিঙ্গারা যাতে নিরাপদে তাদের বাড়িঘরে ফিরতে পারে—সেজন্য মিয়ানমারের সঙ্গে আমরা দ্বিপক্ষীয় আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছি এ কথা জানিয়ে শেখ হাসিনা কম্বোডিয়ার প্রধানমন্ত্রী হুন সেনের কাছেও সহযোগিতার কথা উল্লেখ করে বলেন, যাতে এ সঙ্কটের একটি টেকসই সমাধানে করা যায়।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here